FIR Against Ramdev: 'করোনিল' বিতর্ক, বাবা রামদেব সহ ৩ জনের বিরুদ্ধে রাজস্থানে FIR
বাবা রামদেব (Photo Credits: PTI)

জয়পুর, ২৮ জুন: জোর ধাক্কা খেলেন যোগগুরু রামদেব (Ramdev)। তাঁর বিরুদ্ধে রাজস্থানের জয়পুরে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগ দায়ের হয়েছে পতঞ্জলি (Patanjali) আয়ুর্বেদের সিইও আচার্য বালকৃষ্ণ এবং আরও তিন জনের বিরুদ্ধে। ‘করোনিল’ (Coronil) নামের ওষুধ করোনাভাইরাসের নিরাময় করবে বল দাবি করে রামদেবের সংস্থা পতঞ্জলী। শুক্রবার জানা গিয়েছে, শুক্রবার জয়পুরের জ্যোতিনগর থানায় রামদেব, বালকৃষ্ণ, বিজ্ঞানী অনুরাগ ভার্সানি, এনআইএমএস চেয়ারম্যান বলবীর সিংহ তোমর ও ডিরেক্টর অনুরাগ তোমরের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের হয়েছে। অভিযোগ, পতঞ্জলি আয়ুর্বেদের ওষুধ ‘করোনিল’ করোনা সংক্রমণ থেকে সুস্থ করে তুলবে বলে প্রচার করে মানুষকে ভুলপথে চালিত করা হয়েছে।

দক্ষিণ জয়পুরের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ডিসিপি) অবনীশ পরশার বলেন, "রামদেব, আচার্য বালকৃষ্ণ, বলবীর সিং তোমার, অনুরাগ তোমর এবং অনুরাগ ভার্সানির বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪২০ (প্রতারণা) এবং অন্য ধারায় মামলা করা হয়েছে অ্যাডভোকেট বলবীর জাখরের দায়ের করা এফআইআর অনুসারে।" বলবীর সিং তোমর ও অনুরাগ তোমর হলেন জয়পুরের এনআইএমএস বিশ্ববিদ্যালয়ের চেয়ারম্যান এবং ডিরেক্টর। অন্যদিকে অনুরাগ ভার্সানি হলেন পতঞ্জলি আয়ুর্বেদের বিজ্ঞানী। আরও পড়ুন: Coronavirus In India: ২৪ ঘণ্টায় দেশে রেকর্ড ১৯,৯০৬ জন করোনা আক্রান্ত, মৃত্যু হয়েছে ৪১০ জনের

আইনজীবী বলবীর জাখর বলেন, অভিযুক্তরা করোনাভাইরাস ভ্যাকসিন পেয়েছেন বলে মিথ্যা দাবি করে সাধারণ মানুষের জীবনকে বিপন্ন করে তুলেছেন। কারণ তাঁরা করোনিলের ক্লিনিকাল ট্রায়াল সম্পর্কে রাজস্থান সরকারকে বা কেন্দ্রকে জানাননি। গত মঙ্গলবার ‘করোনিল’ নামে এই ওষুধের লঞ্চ হয়। কেন্দ্রের আয়ুষ মন্ত্রক ওষুধের পরীক্ষা সংক্রান্ত সমস্ত তথ্য তলব করে এবং করোনাভাইরাস সারানোর ওষুধ হিসেবে এর বিজ্ঞাপনের উপরে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। এর পরে জানা যায়, এই ওষুধের জন্য লাইসেন্সের আবেদন পতঞ্জলি আদৌ করোনা সারানোর কথা উল্লেখই করেনি। বলা হয়েছে, এটি জ্বর, সর্দির ওষুধ।