ট্রাফিক আইন ভাঙায় ১১ হাজার টাকা জরিমানা, রেগেমেগে বাইকে আগুন দিলেন চালক
বাইকে আগান জ্বালাচ্ছেন চালক(Photo Credit: ANI)

দিল্লি, ৬ সেপ্টেম্বর: তীব্র গতিতে বাইক চালাতে গিয়ে ট্রাফিক পুলিশরে নজরদারিতে ধরা পড়ে গেলেন এক যুবক। বাইক চালক মত্ত অবস্থায় ছিল বলে অভিযোগ। কর্তব্যরত ট্রাফিক পুলিশ তাঁর বাইক আটকে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দেখতে চাইলে কিছুই দেখাতে পারেননি তিনি। এদিকে জোরে বাইক চালিয়ে তিনি যে ট্রাফিক আইন ভেঙেছেন তা-ও মনে করিয়ে দেওয়া হয়। সঙ্গে ১১ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। রেগেমেগে ঘটনাস্থলেই নিজের বাইকটি জ্বালিয়ে দেন ওই ব্যক্তি। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে দিল্লির শেখ সরাই এলাকায়। জানা গিয়েছে, মোটর ভেহিকেল অ্যাক্ট ২০১৯-এর আওতাতেই জরিমানা করা হয়েছিল।

কর্তব্যরত ট্রাফিক পুলিশ যখন ওই ব্যক্তির কাছে তাঁর বাইকের যাবতীয় নথি দেখতে চান তখনই যেন রেগে যান ওই যুবক। তিনি মত্ত অবস্থায় ছিলেন। সম্ভবত তাঁর কাছে গাড়ির কোনও নথিও ছিল না। সেকারণেই ট্রাফিক পুলিশের সঙ্গে এলোমেলো তর্ক করে যাচ্ছিলেন। কাগজপত্র না দেখাতে পারা জন্যই হয়তো নিজের বাইকে আগুন ধরিয়ে দেন ওই যুবক। পুলিশ জানিয়েছে, মালব্যনগর এলাকার ত্রিবেণী কমপ্লেক্সের ভিতরে সে গাড়িতে আগুন দেয়। তার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। বুধবারই শোনা যায়, দিল্লির কাছে গুরগাঁওতে একাধিকবার ট্রাফিক আইন ভাঙার জন্য এক ব্যক্তিকে ২৪ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। বেঙ্গালুরুতে এক ব্যক্তি মত্ত অবস্থায় গাড়ি চালাতে গিয়ে ধরা পড়েছিল। তাকে ১৭ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। গত রবিবারই কেন্দ্রীয় সরকার জানিয়েছে, এবার থেকে ট্রাফিক আইন ভাঙলে বর্ধিত হারে জরিমানা দিতে হবে। তারপরেই দেশের নানা প্রান্ত থেকে বিপুল অঙ্কের জরিমানা করার খবর আসছে। শুধুমাত্র মোটর বাইক বা চার চাকার গাড়ির মালিকরা নন, অটো রিকশকেও বড় অঙ্কের ফাইন করা হচ্ছে। আরও পড়ুন-প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আসছেন ,তাই প্লাস্টিক ব্যবহার রোধে ৪ হাজার মাটির পাত্র কিনল হরিয়ানা সরকার

সংশোধিত মোটর ভেহিকেলস অ্যাক্ট অনুযায়ী মত্ত অবস্থায় গাড়ি চালালে জরিমানা ১০ হাজার টাকা। ড্রাইভিং লাইসেন্স ছাড়া গাড়ি চালালে দিতে হবে পাঁচ হাজার টাকা। হেলমেট ছাড়া গাড়ি চালালে জরিমানা ১ হাজার টাকা। বাইকে চালকের পিছনে যিনি বসবেন, মাথায় হেলমেট না থাকলে তাঁকেও ১ হাজার টাকা জরিমানা দিতে হবে।