COVID-19 Vaccination: দেশে প্রথম করোনা ভ্যাকসিন নিলেন স্যানিটেশন কর্মী মণীশ কুমার, দেখুন ভিডিও
স্যানিটেশন কর্মী মণীশ কুমার (Photo: ANI)

নতুন দিল্লি, ১৬ জানুয়ারি: দেশজুড়ে করোনার টিকাকরণের সূচনা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। টিকাকরণের সূচনা করে ভিডিয়ো কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে দেশবাসীর উদ্দেশে বক্তব্য রাখেন তিনি। দিল্লি এইমসে (AIIMS) টিকাকরণের সূচনায় উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন। এইমসে প্রথম টিকা দেওয়া হয় এক স্যানিটেশন কর্মীকে। তাঁর নাম মণীশ কুমার (Manish Kumar)। দেশে তিনিই প্রথম করোনা ভ্যাকসিনের শট নিয়েছেন। ভ্যাকসিন শট দেওয়ার পরে হাততালি শুভেচ্ছা জানান অনুষ্ঠানে উপস্থিত চিকিৎসক, কর্মকর্তা ও স্বাস্থ্যকর্মীরা।

সকাল সাড়ে ১০টায় ভার্চুয়াল সূচনার পর নরেন্দ্র মোদি বলেন, আজ আরও একবার আত্মনির্ভর ভারত নিয়ে গর্ব হচ্ছে। অনেক স্বাস্থ্যকর্মী, পুলিশকর্মীরা লড়েছেন, কেউ প্রাণ হারিয়েছেন। আজ স্বাস্থ্য কর্মীদের টিকা দিয়ে তাদের ঋণ শোধ করছে, বলে জানান প্রধানমন্ত্রী। এই টিকা দেশের মানুষের জন্য সুরক্ষিত। ২টি ডোজের মধ্যে এক মাসের ব্যবধান থাকবে। দ্বিতীয় ধাপে ৩০ কোটি মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে বলে জানান তিনি। আরও পড়ুন: Narendra Modi on COVID19 Vaccine Launch: 'আজকের দিনের জন্যই অপেক্ষা ছিল দেশবাসীর’, করোনা ভ্যাকসিনের উদ্বোধনে ভার্চুয়ালি বক্তৃতায় গর্বপ্রকাশ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির

মোদি বলেন, "আজকের দিনের জন্যই অপেক্ষা ছিল দেশবাসীর। করোনার ভ্যাকসিন কবে আসবে, প্রশ্ন ছিল এটাই। কয়েক মিনিটের মধ্যেই বিশ্বের সর্ববৃহত্‍ টিকাকরণের সূচনা। বৈজ্ঞানিকদের ভ্যাকসিনের জন্য প্রশংসা প্রাপ্য। ওঁরা দিন-রাত এক করে কাজ করেছেন। ভ্যাকসিন তৈরি হতে অনেক সময় লাগে। এক্ষেত্রে খুব কম সময়ে জোড়া ভ্যাকসিন তৈরি হয়েছে।" সর্বোপরি ফ্রন্টলাইন কর্মীদের তিনি আবারও ধন্যবাদ জানান। টিকা নেওয়া মানে সঙ্গে সঙ্গেই কোভিড বিধি অবহেলা করা নয়, সেই পাঠ পড়ান দেশবাসীকে। টিকাকরণের কী কী নিয়ম অবশ্যই মেনে চলতে হবে, তা নিয়ে সতর্ক করেন দেশের মানুষকে।

যাঁর সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কা সবচেয়ে বেশি, তিনি আগে পাবেন টিকা। পাশাপাশি ভ্যাকসিন নেওয়ার পর করোনা বিধি ভুলে গেলেও চলবে না তাও জানান। যতদিন না করোনা নির্মূল হচ্ছে ততদিন মাস্ক পড়ার আর্জি করেছেন প্রধানমন্ত্রী। যাঁরা দিন রাত এক করে ল্যাবে করোনার টিকা বানিয়েছেন তাঁদেরও কুর্নিশ জানিয়েছেন তিনি। করোনা পরিস্থিতির শুরুর দিন থেকে হয়ে আসা সমস্ত সমস্যার কথা আজ তাঁর বক্তৃতায় ফের তুলে ধরেন। সেই পরিস্থিতি কাটিয়ে ভারতবাসী এক নতুন সকাল দেখবে বলে আশ্বাস দেন নরেন্দ্র মোদি।