NPR 2020: সিএএ-র পর কংগ্রেসশাসিত রাজ্যগুলিতে এবার এনপিআর প্রত্যাহারের প্রস্তাব
কংগ্রেস দল (Photo Credits: IANS)

নতুন দিল্লি, ২২ জানুয়ারি: সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের (CAA) বিরোধিতার পর এবার ন্যাশনাল পপুলেশন রেজিস্টার (NPR) প্রত্যাহারের পথে হাঁটবে কংগ্রেসশাসিত (Congress State) রাজ্যগুলি। তারা আগেই ঘোষণা করেছে এটি এনআরসি আনার প্রথম পদক্ষেপ। সুতরাং, এই পথে হাঁটবে না দল। সিএএ-র পর এনপিআর প্রত্যাহারে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ কংগ্রেস।

বরিষ্ঠ কংগ্রেস নেতা কপিল সিব্বল (Kapil Sibal) জানান, এনপিআর না হওয়া পর্যন্ত সিএএ লাগু করা যাবে না। "আগামী ১ এপ্রিল, ২০২০ তে শুরু হবে এনপিআর-র কাজ। এনপিআরের মধ্যে দিয়ে বাড়ি বাড়ি গিয়ে একটি সমীক্ষা হবে। যা সিএএ-র পথকে আরও মসৃন করে দেবে। তাই এখন এটা বুঝতে পারছেন না। পরে বোঝা যাবে।" তিনি আরও বলেন,"সুপ্রিম কোর্ট যদি একবার আইন হিসেবে সিদ্ধান্ত নিয়েছে তখন রাম জন্মভূমের মতো সিএএকেও আইন হিসেবে মানতে হবে। সুতরাং একবার এই আইনটি ঘোষণা করলে তা প্রত্যেকের জন্য বাধ্যতামূলক।"

আরও পড়ুন, আজ সুপ্রিম কোর্টে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের শুনানি

কংগ্রেস দলের সভাপতি সনিয়া গান্ধী জানিয়ে দেন,"আমাদের মধ্যে ভ্রান্তির সৃষ্টি করবেন না। এনপিআর ২০২০ এনআরসিরই জাল।" কিছুদিন আগে কংগ্রেস অবিজেপি দলগুলির সঙ্গে সিএএ বিরোধী বৈঠক করে। তারা সেখানে সিদ্ধান্ত নেয় কোনওভাবেই এনপিআর হতে দেবে না।" কেরালা এবং পাঞ্জাব সরকার ইতিমধ্যে ঘোষণা করেছে তারা এনপিআর হতে দেবে না। কংগ্রেস জোর গলায় জানিয়েছে, আমরা এবার মধ্যপ্রদেশ (Madhya Pradesh), ছত্তিসগড় (Chhattisgarh) ও রাজস্থানেও আটকানোর প্রচেষ্টা চালাবে। তারা বারবার বলছে, সিএএ এবং এনআরসি মুসলিম সম্প্রদায়ের সঙ্গে অসাম্প্রদায়িকতা করছে। হিন্দুরা এনআরসি ঠিক বেরিয়ে গেলেও সিএএ-র মধ্যে দিয়ে ফিরে আসতে পারবে। যা মুসলিমরা পারবে না।