বেখেয়ালে ফেলে দেওয়া দেশলাই কাঠি থেকে আগুন লেগে অটোতে অগ্নিদগ্ধ চালক
অটো। প্রতীকী ছবি। (Photo Credits: Unsplash)

চেন্নাই, ৭ অগাস্ট: মর্মান্তিক মৃত্যু। চেন্নাইয়ে এক অটো চালক অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারা গেলেন। একটা আধা জ্বলন্ত দেশলাই কাঠির আগুন ছড়িয়ে পড়ে মর্মান্তিকভাবে মৃত্যু হল অটো চালকের। সোমবার রাতে যাত্রীদের নামিয়ে চা খাওয়ার পর সিগারেট ধরান চেন্নাইয়ের সেই অটো চালক। কিন্তু তিনি খেয়াল করেননি সিগারেট জ্বালানোর জন্য যে দেশলাই কাঠিটা তিনি ব্যবহার করেছিলেন, সেটা সম্পূর্ণ নিভে যায়নি।

সেই ছোট্ট দেশলাই কাঠিটাই চরম পরিণতি ডেকে আনল। চা পানের পর দেশলাই দিয়ে সিগারেট ধরিয়ে সুখটান দিতে থাকেন সেই অটো চালক। এদিকে, ছোট একটা আগুনের শিখা ক্রমে ছড়িয়ে পড়তে থাকে। তিনি আবার পরেছিলেন পলিস্টার জাতীয় ধুতি। আরও পড়ুন-তোমাদের মতো মেয়েদের এখনই রেপ করা উচিত’, কলকাতার রাজপথে আক্রান্ত তরুণী

যে ধুতিটা আবার দারুণভাবে অগ্নিদাহ্য। ধুতি থেকে আগুন দ্রুত ছড়িয়ে যায় তাঁর দেহে। যে চায়ের দোকান থেকে কিছুটা দূরে তিনি অটো রেখে ধূমপান করছিলেন, সেখানে অনেক লোক থাকলেও তারা বুঝতে পারেনি। কিন্তু গোটা গায়ে আগুন নিয়ে 'বাঁচাও, বাঁচাও' বলে যখন জীবনে বাঁচানোর আর্তি জানাতে থাকেন সেই অটো চালক, তখন সবাই ছুটে আসেন। কিন্তু ততক্ষণে অনেকটা দেরি হয়ে গিয়েছে।

স্থানীয় পুলিশ জানায় অটো চালকের নাম সৈয়দ ইয়োসুফ। তার বাড়ি নীলম ভাষা দারগা স্ট্রিটের আইস হাউসে। পুলিশ জানায় চা পান করার পরই সে তাঁর অটোতে বসে সিগারেট জ্বালিয়েছিল। আর সেখান থেকেই মর্মান্তিক এই দুর্ঘটনা। চালক অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারা গেলেও অটোর সেভাবে কোনও ক্ষতি হয়নি বলে পুলিশ জানায়।