BJP: মুখ্যমন্ত্রীর ছেড়ে যাওয়া কেন্দ্রে গতবার যিনি কংগ্রেস প্রার্থী এবার তিনি পদ্মের টিকিটে লড়বেন
BJP (Representational Image/ Photo Credits: ANI)

চণ্ডীগড়, ৬ জুন: পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী হওয়ায় আম আদমি পার্টি-র ভগবন্ত মান সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন। ফলে সাঙ্গরুর লোকসভা কেন্দ্র এখন ফাঁকা। পঞ্জাবের সাঙ্গুরর লোকসভা কেন্দ্রে ২০১৪ ও ২০১৯ বড় ব্যবধানে জিতেছিলেন ভগবন্ত মান। এবার মুখ্যমন্ত্রীর ছেড়ে দেওয়া সাঙ্গুরর লোকসভা কেন্দ্রে হবে উপনির্বাচন। সেই উপনির্বাচনে বিজেপি প্রার্থী হিসেবে দাঁড়াল প্রাক্তন কংগ্রেস তারকা নেতা কেওয়াল সিং ধিঁলোকে। ২০১৯ লোকসভায় সাঙ্গুররে কংগ্রেস প্রার্থী হিসেবে লড়েছিলেন কেওয়াল সিং। এবার তিনিই লড়বেন পদ্ম প্রতীকে। মানের ছেড়ে আসা এই কেন্দ্রে উপনির্বাচনে আপ প্রার্থী করেছে গুরমেল সিংকে।

কংগ্রেস চাইছে সম্প্রতি খুন হাওয়া তারকা গায়ক সিধু মুসওয়ালের বাবাকে সর্বসম্মতিক্রমে এখান থেকে জিতিয়ে এনে সাংসদ করতে। ২০১৯ লোকসভায় সাঙ্গুর থেকে আপ-এর টিকিটে ভগবন্ত মান জিতেছিলেন ১ লক্ষ ১০ হাজারের বেশি ভোটের ব্যবধানে। ২০১৪ লোকসভায় মানেক মার্জিন ছিল ২ লক্ষ ১০ হাজারের মত। আরও পড়ুন: কেরালায় নরভাইরাসের থাবা, আক্রান্ত ২ শিশু

দেখুন টুইট

ক মাসে আগে হওয়া পঞ্জাব বিধানসভা নির্বাচনে খারাপ ফল হওয়ার পর পদ্ম শিবির এখন কংগ্রেসের ঘর ভাঙিয়ে পঞ্চনদের দেশের নিজেদের সংগঠন মজবুত করতে চাইছে। পঞ্জাবের প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি সুনীল জাখর ভোট মেটার পর দল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর, হাত শিবির ছেড়ে একের পর এক বড় নেতা পদ্মশিবিরে যোগ দিচ্ছেন। আপ-এর কাছে শোচনীয়ভাবে হেরে পঞ্জাবে ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর পঞ্জাবে কংগ্রেস একেবারে কোণঠাসা। নেতাদের হাত-ছাড়া করেই তাই পঞ্জাবে প্রধা বিরোধী দলের আসন নিতে চাইছে বিজেপি।