Jammu and Kashmir: উপার্জন বন্ধ স্কুলবাস চালানো বাবার, সংসার চালাতে অটো চালানো শুরু কাশ্মীরি কন্যার
বনজীৎ কৌর (Photo Credits: ANI)

উধমপুর, ১২ জানুয়ারি: নিয়মের বেড়াজাল ভেঙে ফের নজির ঘটালো এক ভারতীয় কন্যা। পরিবারের হাল ধরতে অটো চালানো শুরু করলেন জম্মু ও কাশ্মীরের (Jammu and Kashmir) উধমপুর জেলার ২১ বছর বয়সী তরুণী বনজীৎ কৌর। করোনাকালে দীর্ঘ ৯ মাস ধরে বন্ধ স্কুল। তাই চাকরি হারিয়েছেন শিক্ষক, স্কুল কর্মী ছাড়াও আনুষঙ্গিক কর্মরত অনেকেই। স্কুল বন্ধ থাকার কারণে বাস ড্রাইভারির চাকরিটা হারিয়েছেন বনজীৎ-র বাবা। ফলে অর্থের অভাবে অচল হয়ে পড়েছে পরিবার। তাই আর অপেক্ষা না করে নিজেই সংসারের দায়িত্ব কাঁধে নিয়ে বেড়িয়ে পড়েন অটো চালক হিসেবে।

সংবাদসংস্থা এএনআই-র সঙ্গে কথা বলে বনজীৎ জানান, তাঁর স্বপ্ন সেনাবাহিনীতে চাকরি করার। তাই পড়াশোনা থামাননি। বাবার কাঁধের বোঝা হালকা করতেই অটো চালানোর পথ বেছে নেন। তিনি বলেন,'আমি স্নাতক দ্বিতীয় বছরের ছাত্রী এবং অর্থ উপার্জনের জন্য অটো-রিক্সা চালানোর কাজ করছি। মেয়েদের সমস্তরকম কাজের জন্য প্রস্তুত থাকা উচিত। ছেলে মেয়ের কাজ আলাদা বলে কিছু হয় না এই বার্তা পৌঁছে দিতে চান।

আরও পড়ুন, কৃষকদের অভিযোগ শুনতে ৪ সদস্যের কমিটি গঠন করল সুপ্রিম কোর্ট

তাঁর বোন দাভিনদর কৌরও জানান, দিদি সমস্ত মেয়েদের কাছে একজন উদাহরণ হয়ে থাকবে। আমিও গাড়ি চালাতে পারি। প্রত্যেকটা মেয়েদের ভেদাভেদ না করে সমস্ত কাজ শেখা জরুরি। নিজেদের পেশা বেছে নেওয়ার স্বাধীনতা থাকা উচিত। এই দুঃসময়ে মেয়ের এই সিদ্ধান্তে গর্বিত বাবা।