Kinnaur Landslide Incident: হিমাচলের কিন্নরে ধসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৩, জীবিতাবস্থায় উদ্ধার ১৩ জন
চলছে উদ্ধার কাজ (Photo Credits: ANI)

কিন্নর, ১২ আগস্ট: পাহাড় বেয়ে নেমে আসছে বড় বড় পাথর৷ হিমাচলের কিন্নরে (Kinnaur Landslide Incident) মৃতের সংখ্যাও বাড়ছে তরতরিয়ে৷ বুধবার দুপুর থেকে এই পর্যন্ত ধসে চাপা পড়া ১৩ জনের দেহ উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে৷ রেকোপেও থেকে হরিদ্বার যাওয়ার পথে চউরা গ্রামের কাছে নুগুলসারিতে  ম্বর জাতীয় সড়কের উপরে ধস নামে৷ পাহাড় থেকে গড়িয়ে আসা পাথরের চাঁই পড়ে জাতীয় সরকের উপরে চলমান হিমাচল প্রদেশের সরকারি বাস, একটি বোলেরো একটি টাটা সুমো ও ট্রাকের উপরে৷ বোলেরো গাড়িটির কোনও হদিশ মেলেনি৷ তবে ট্রাক চালকের দেহ উদ্ধার করা গেছে৷ উদ্ধার হয়েছে টাটা সুমোর আট যাত্রীর দেহও৷ আইটিবিপি ও এনডিআরএফ এবং স্থানীয় পুলিশের তৎপরতায় সরকারি বাসটির চালক ও কন্ডক্টরকে জীবিতাবস্থায় উদ্ধার করা গেছে৷ টকে পড়া বাসযাত্রীদের উদ্ধারের চেষ্টা চলছে৷  আরও পড়ুন-Coronavirus Cases In India: দেশে ঊর্ধ্বমুখী দৈনিক সংক্রমণ, নতুন আক্রান্ত ৪১ হাজার ১৯৫ জন

আহতদের ইতিমধ্যেই স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে৷ বুধবার ১১ জনের দেহ উদ্ধার হয়েছিল৷ আবহাওয়া খারাপ থাকায় বাধ্য হয়েই উদ্ধারকাজ বন্ধ রাখা হয়৷ আজ ধস সরিয়ে এখনও পর্যন্ত দু’জনের দেহ উদ্ধার হয়েছে৷ তবে সংশ্লিষ্ট এলাকায় এখনও পাহাড় থেকে গড়িয়ে নামছে পাথর৷ তাই সেখানে যাতায়াত করা বেশ বিপজ্জনক হয়ে পড়েছে৷ বেশ কিছুদিন আগে এই কিন্নরে বাতাসৌরি এলাকায় বোল্ডার পড়ে ৯ জন প্রাণ হারিয়েছিলেন৷ সেই দগদগে ক্ষতর মধ্যেই ফের নামল বড়সড় ধস৷ এদিকে হিমাচলে একের পর এক ধস নামার ঘটনায় উদ্বিগ্ন ভূতাত্ত্বিকরা৷

অন্যদিকে বুধবার ধসের ঘটনায় হিমাচলের মুখ্যমন্ত্রী জয়রাম ঠাকুরকে সবরকম সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন  নরেন্দ্র মোদি৷ প্রধানমন্ত্রীর সচিবালয় থেকে এক টুইট বার্তায় এই খবর জানানো হয়৷ পরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহও জয়রাম ঠাকুরের সঙ্গে কথা বলেন৷ আজ ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যাবেন হিমাচলের মুখ্যমন্ত্রী৷