উপত্যকায় সেনা নিরাপত্তাকে চ্যালেঞ্জ, জঙ্গির গুলিতে নিহত প্রবীণ দোকানি
কাশ্মীরে সেনা টহল(Photo Credit: PTI)

শ্রীনগর, ৩০ আগস্ট:  ৩৭০ ধারা তুলে নেওয়ার আগে থেকেই কড়া নিরাপত্তায় মুড়েছে ভূস্বর্গ। ৩৭০ ধারা (Article 370) উঠে যাওয়াতে কাশ্মীরে শান্তি ফিরেছে। কেন্দ্রের সরকার যতই এই বার্তা দেওয়ার চেষ্টা করুক না কেন, বাস্তবটা ততটাই কঠিন। কেন্দ্র ও কাশ্মীর প্রশাসন সেনা পুলিশ যত চাইছে উপত্যকাকে শান্ত রাখতে, ততই কোনও না কোনও দুর্ঘটনা ঘটেই চলেছে। কড়া নিরাপত্তাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে উপত্যকার এক সাধারণ কাশ্মীরিকে গুলি করে পালাল জঙ্গিরা। বৃহস্পতিবার চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে উপত্য়কার পারিমপোরা  এলাকায়। মৃত ব্যক্তির বয়স ষাটের কোঠায়। তিনি একজন দোকানি। সকালে দোকানেই বসেছিলেন। অভিযোগ, সেই সময় এক অজ্ঞাত পরিচয় দুষ্কৃতীর গুলিতে তাঁর মৃত্যু হয়।

অভিযুক্তকে জঙ্গি হিসেবেই সন্দেহ করছে উপত্যকার পুলিশ প্রশাসন। অভিযোগ, জঙ্গি বন্দুকের নলের সামনে ওই বয়স্ক দোকানিকে মাথা নত করতে বাধ্য করে তিনি রাজি না হতেই তাঁকে গুলি করে উধাও হয় অভিযুক্ত। খবর পেয়েই গুরুতর আহত দোকানিকে উদ্ধার করে পুলিশ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন। অভিযুক্তকে খুঁজে বের করতে শুরু হয়েছে তল্লাশি। এই ঘটনা দেখেই স্পষ্ট যে উপত্যকা যতই নিরাপত্তা রক্ষীর নিয়্ন্ত্রণে থাকুক না কেন তা জঙ্গিদের কাছে তা তুচ্ছ। শ্রীনগরের কড়া নিরাপত্তা ভাঙতে জঙ্গিদের যে সময় লাগবে না, তারই যেন প্রমাণ এই ঘটনা। আরও পড়ুন-ভূ স্বর্গে গিয়ে পাকিস্তানকে কড়া বার্তা রাজনাথ সিংয়ের: 'POK ভারতের অংশ, কাশ্মীর তোমাদের কবে ছিল! যে তোমরা সব সময় কাঁদতে থাকো'

সোমবার অনন্তনাগ জেলার বিজবেহরা এলাকায় এক ব্যক্তি ট্রাক চলাকালীন অবস্থায় খুন হয়েছেন। মৃতের নাম নূর মহম্মদ (Noor Mohammad)। তিনি স্থানীয় জারদিপোরা উর্নহলের বাসিন্দা। জানা গিয়েচে ক্রমাগত পাথর ছোঁড়ার আঘাতেই তাঁর মৃত্যু হয়েছে। ইতিমধ্যেই অভিযুক্ত পাথর নিক্ষেপকারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তবে ধৃতের পরিচয় এখনও প্রকাশ্যে আসেনি।