Soumitra Chatterjee On New Detactive Character: 'এখন আর কোন চরিত্র মাথায় থাকে না' নতুন গোয়েন্দা চরিত্রে অভিনয় প্রসঙ্গে লেটেস্টলি বাংলার কাছে অকপট বর্ষীয়ান অভিনেতা সৌমিত্র চ্যাটার্জি
সৌমিত্র চ্যাটার্জি (প্রতীকী ছবি: Facebook)

কলকাতা, ৩১ অক্টোবর: ফের গোয়েন্দার চরিত্রে (Detactive Character) ফিরতে চলেছেন বর্ষীয়ান অভিনেতা সৌমিত্র চ্যাটার্জি (Soumitra Chatterjee)। তবে এবার আর ফেলুদা চরিত্রে নয়। সৌমিত্রবাবু ফিরতে চলেছেন 'শল্যজিৎ' (Shalyajit) নামের একটি গোয়েন্দা চরিত্রে। ছবির নাম ‘এবার শল্যজিৎ।’জানা গিয়েছে, শল্যজিতের ভূমিকাতেই দেখা যাবে সৌমিত্রকে। তবে এই ছবিতে গোয়েন্দা চরিত্রটি মোটেই নায়কোচিত নয়। আর এখানেই কাহানি মে টুইস্ট। ছবিতে সৌমিত্রবাবুর চরিত্রটি কিছুটা নেতিবাচক। এই ছবি প্রসঙ্গে প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে সৌমিত্রবাবু লেটেস্টলি বাংলাকে (LatestLY Bangla) জানালেন, "এত চরিত্রে অভিনয় করে ফেলেছি, কোন চরিত্র এখন আর মাথায় থাকে না!"

দর্শক আপনাকে ফেলুদার চরিত্রেই দেখে অভ্যস্ত, এবার সম্পূর্ণ নতুন একটা চরিত্র দর্শকের কাছে কতটা গ্রহণযোগ্য হবে বলে মনে হয়? প্রশ্নে সৌমিত্রবাবু আরও বলেন, " এখন আমি সেটে যেটুকু সময় থাকি সেই সময়টুকুই চরিত্র মনে রাখি। তারপর আর মাথায় থাকে না কোন চরিত্রের কথা।" ‘এবার শল্যজিৎ’ নামের এই ছবিতে সোম ও শল্যজিৎকে নিয়ে ছবির গল্প। প্রাতঃভ্রমণ (Morning Walk) করতে গিয়ে তাদের আলাপ। এরপরই আচমকা মৃত্যু হয় সোমের। রহস্য সমাধানে এগিয়ে আসে শল্যজিৎ। এইভাবেই এগিয়েছে ছবিটি। সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ছাড়াও ছবিতে অভিনয় করেছেন মাধবী মুখার্জি (Madhabi Mukherjee), সুব্রত ব্যানার্জি (Subrata Banerjee) ও সঞ্জয় সিনহা (Sanjoy Banerjee)। আরও পড়ুন: তীব্র শ্বাসকষ্ট জনিত কারণে গুরুতর অসুস্থ অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, ভর্তি হাসপাতালে

অভিনেতার কথা থেকে স্পষ্ট হয় বয়সের ভার গ্রাস করছে তাকে। কিছুদিন আগেই শ্বাসকষ্ট জনিত (Breathing Problem) কারণে গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে (Hospital) ভর্তি হয়েছিলেন কিংবদন্তী অভিনেতা। শ্বাসকষ্টের প্রবনতা বেড়ে যাওয়ায় হাউস ফিজিশিয়ানকে খবর দেওয়া হয়। তাঁর পরামর্শ মতোই বাইপাসের ধারের এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয় প্রবীণ অভিনেতাকে। উল্লেখ্য, আজও বাঙালির মনে ফেলুদা (Feluda) বলতে সৌমিত্রবাবু। সব্যসাচী চক্রবর্তী (Sabyasachi Chakraborty), আবির চ্যাটার্জির (Abir Chatterjee) মতো অভিনেতারা ফেলুদাকে পর্দায় ফুটিয়ে তুলেছেন ঠিকই। কিন্তু সৌমিত্রকে পিছনে ফেলতে পারেননি।