Tunisha Sharma Death Case: পুলিশি হেফাজতে থাকা পাসপোর্ট ফেরতের দাবিতে আদালতের দারস্ত শেহজান
Tunisha Sharma and Sheezan Khan (Photo Credits: Instagram)

মুম্বই, ১ মেঃ টেলিভিশন অভিনেত্রী তুনিশা শর্মার (Tunisha Sharma Death Case) আত্মহত্যার পর বিশেষ বন্ধু শেহজান খানের (Sheezan Khan) কারাবাস হয়েছিল। পরবর্তীকালে সেই মামলায় জামিল মিলেছে শেহজানের। তবে টেলি অভিনেতার পাসপোর্ট এখনও পুলিশি হেফাজতেই রয়েছে। নিজের পাসপোর্ট ফেরতের দাবিতে মুম্বইয়ের ভাসাই কোর্টে আবেদন করেছেন শেহজান (Sheezan Khan)।

২৪ ডিসেম্বর ধারাবাহিকের শুটিং সেট থেকে উদ্ধার হয়েছিল তরুণ অভিনেত্রী তুনিশা শর্মার (Tunisha Sharma Death) ঝুলন্ত দেহ। অভিনেত্রীর আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার হয়েছিলেন প্রেমিক শেহজান খান। প্রায় দুমাস জেল খাটার পর জামিনে মুক্তি পেয়েছিলেন তিনি। এক লক্ষ টাকার সিকিউরিটি বন্ডে শর্তসাপেক্ষ জামিন মিলেছিল তাঁর। এছাড়াও শেহজানের পাসপোর্ট জমা রাখার নির্দেশ দিয়েছিল মুম্বইয়ের ভাসাই আদালত। তদন্তের প্রয়োজনে তাঁকে যেকোনো সময়ে উপস্থিত হতে বলা হয়েছিল।

জমা রাখা পাসপোর্ট এবার ফেরত চেয়ে ভাসাই করতে আবেদন করলেন শেহজান (Sheezan Khan)। আগামীকাল ২ মে ভাসাই আদালতে শুনানি হবে শেহজানের পাসপোর্ট ফেরতের আবেদনের।

উল্লেখ্য, অভিনেত্রীর মৃত্যুর দিন পনেরো আগেই সম্পর্ক ভাঙে তুনিশা এবং শেহজানের। এমনকি আত্মহত্যার আগে ফোনে শেষবার শেহজানের সঙ্গেই কথা বলেছিলেন তুনিশা। ফলে তরুণ অভিনেত্রীর আত্মহত্যার সরাসরি প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল শেহজানের বিরুদ্ধে। এছাড়াও একাধিক মেয়ের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হওয়ার প্রমাণও মিলেছিল শেহজানের বিরুদ্ধে।