যৌন হেনস্থা: নানা পাটেকরের বিরুদ্ধে অভিযোগ ধোপে টিকল না তনুশ্রী দত্তের, প্রমাণের অভাবে বন্ধ হল কেস
নানা পাটেকরের বিরুদ্ধে তনুশ্রী দত্তের যৌবন হেনস্থার অভিযোগ ধোপে টিক না। (File Image)

মুম্বই, ১৩ জুন: নানা পাটেকর (Nana Patekar)- তনুশ্রী দত্ত (Tanushree Dutta)। ভারতে #metoo আন্দোলনের জোয়ার যে যৌন হেনস্থার কাণ্ডকে ঘিরে, সেটা বড় ধাক্কা খেল। বিখ্যাত অভিনেতা নানা পাটেকের ওপর বলিউডের বাঙালী অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্তের আনা যৌন হেনস্থার অভিযোগ একেবারেই ধোপে টিকল না। নানা-র বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার তদন্তে নেমে অভিযোগের কিছুই সারবত্তা খুঁজে পেল না মুম্বই পুলিশ। তাই পুলিশের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয় এই কেস বন্ধ করা হচ্ছে। সেই সঙ্গে নানা-কে ক্লিনচিটও দেওয়া হল।

মুম্বই পুলিশ নানা পাটেকরের বিরুদ্ধে ওঠা যৌন হেনস্থার অভিযোগের কেসে বি সামারি রিপোর্ট পেশ করে। এই রিপোর্ট তখনই প্রকাশ করে যখন অভিযোগের স্বপক্ষে একেবারেই কোনও প্রমাণ থাকে। এই কথা জানিয়ে মুম্বই পুলিশ জানিয়ে দেয়, অভিযোগের পিছনে একেবারেই কোনো প্রমাণ না থাকায় তদন্ত এখানেই বন্ধ করা হচ্ছে। আরও পড়ুন-তারা সুতারিয়া-কে কেন এখন বলিউডের সবচেয়ে মিষ্টি লুকের নায়িকা বলা হয় (দেখুন ছবিতে)

বছর দশেক আগে যে সিনেমার সেটে নানা পাটেকরের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার বিস্ফোরক অভিযোগ তুলেছিলেন 'আশিক বানায়ে আপনে' খ্যাত বাঙালী অভিনেত্রী, সেই পুরনো কাণ্ডের তদন্তে নেমে কিছুই মিলল না। তনুশ্রী-র অভিযোগ ছিল, ২০০৯ সালে 'হর্ন ওকে প্লিজ' ছবির শুটিং ফ্লোরেই তাঁকে যৌন হেনস্থার পাশাপাশি কুপ্রস্তাব দিয়েছিলেন নানা পাটেকর। ওই ছবিতে নানা পাটেকরই ছিলেন প্রধান ভূমিকায়। একটি আইটেম নাম্বারে ছিলেন তনুশ্রী। বাঙালি অভিনেত্রীর অভিযোগ, সেই গানের দৃশ্যেই নানা তাঁর সঙ্গে অস্বস্তিকর ব্যবহার করেন। তাঁর দাবি ছিল, অন্তরঙ্গ হওয়ার প্রস্তাবও নাকি দিয়েছিলেন নানা। তনুশ্রী-র সেই অভিযোগের পর ঝড় উঠে যায় দেশজুড়ে। টুইটার তখন নানা সোশ্যাল মিডিয়ায় তনুশ্রী সমর্থনে হয় নানা পোস্ট। #metoo হ্য়াশট্য়াগের মাধ্যমে যৌন হেনস্থার বিরুদ্ধে সরব হন অনেকে। সেই সময় নানা পাটেকর নিজেকৈে নির্দোষ বলে দাবি করেছিলেন। তবে যৌন হেনস্থার মত গুরুতর অভিযোগ ওঠায় নানা কোণঠাসা হচ্ছিলেন।