Kangana Ranaut: ভারাক্রান্ত হৃদয়ে শহর ছাড়ছেন, মুম্বইকে ফের ‘পাক অধিকৃত কাশ্মীর’ বললেন কঙ্গনা
কঙ্গনা রানাউত (Photo Credits: Instagram, Twitter)

ফের বিতর্ক জিইয়ে মুম্বই ছাড়লেন বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত (Kangana Ranaut)। এবং টুইটারে আরও একবার স্বপ্নের শহর মুম্বইকে পাক অধিকৃত কাশ্মীর বলতে ভুললেন না কুইন। আগেই যে মন্তব্যের কারণে একের পর এক প্রতিবন্ধকতার মধ্যে দিয়ে যেতে হয়েছে বি-টাউনের ঝাঁসির রানিকে। শুধু শিবসেনা নেতৃত্বই নয়, সহ অভিনেতা অভিনেত্রীরাও কঙ্গনার এই বিরূপ মন্তব্যের প্রতিবাদে মুখ খুলেছেন। কেউ কেউ তাঁকে কটাক্ষ করতেও ছাড়েননি। যেমন গতকাল প্রকাশ রাজ বলেছেন, কঙ্গনা যদি ঝাঁসির রানি লক্ষ্মীবাঈ হন তাহলে অক্ষয় কুমার ভগৎ সিং। যাইহোক মুম্বইকে ঘিরে বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে বৃহন্মুম্বই পুরসভার রোষের মুখে পড়তে অভিনেত্রীকে। সেই সূত্র ধরেই বেআইনি নির্মাণের অভিযোগ তুলে বান্দ্রার অফিসের একাংশ ভেঙে দেয় বিএমসি।

হিমাচলের উদ্দেশে রওনার আগে কঙ্গনার টুইট

আগেই শিবসেনার হুমকি থেকে বাঁচতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের কড়া নিরাপত্তার সুবিধা পেয়েছেন তিনি। ভেবেছিলেন সব সমস্যা কেটে গেছে। কিন্তু উদ্ধব ঠাকরে এত সহজে মাটি ছেড়ে দেবেন না। তাইতো মুম্বইতে ফেরার পর একের পর এক আক্রমণের মুখোমুখি হতে হয়েছে তাঁকে। সোমবার বাণিজ্য নগরী ছেড়ে ফের হিমাচলের পতে রওনা দিলেন কঙ্গনা। যাওার আগে টুইট বার্তায় একই মন্তব্যের পুনরাবৃত্তি করলেন, অর্থাৎ মুম্বইকে তাঁর ‘পাক অধিকৃত কাশ্মীর’ মনে হচ্ছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ফের একই বার্তার পর, অভিনেত্রী যে বড়সড় বিপত্তি জড়াতে চলেছেন তানিয়ে কোনও সন্দেহ নেই। এটার শুরু তখন হয়েছিল, যখন কঙ্গনা বলেছিলেন মুম্বইকে আর নিরাপদ মনে করেন না তিনি। মুভি মাফিয়াদের থেকে মুম্বই পুলিশকেই বেশি ভয় তাঁর। বলিউড অভিনেত্রীর এই মন্তব্যকে হালকা চালে নেয়নি শিবসেনা। এর পর মুখপত্র সামনা’য় সম্পাদকীয়তে শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউত লেখেন, যদি নিরাপত্তার অভাব বোদ করেন তাহলে অভিনেত্রীর মুম্বইতে ফেরা উচিত নয়। এই বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় কঙ্গনার টুইট, “শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউত আমায় সরাসরি হুমকি দিয়েছেন। এবং আমাকে মুম্বই আসতে নিষেধ করেছেন। প্রথমে মুম্বইয়ের রাস্তায় আজাদির গ্রাফিত্তি, তারপর এই সরাসরি হুমকি পর কেন মু্ম্বইকে পাক অধিকৃত কাশ্মীর বলে মনে হচ্ছে?”