Sushant Singh Rajput Case: বিহারের আইপিএস অফিসার বিনয় তিওয়ারিকে কোয়ারেন্টাইন থেকে ছাড়লো বিএমসি
সুশান্ত সিং রাজপুত ও আইপিএস বিনয় তিওয়ারি (Photo Credits: Twitter)

মুম্বই, ৭ আগস্ট:  হোম কোয়ারেন্টাইন থেকে বিহার পুলিশের আইপিএস অফিসার বিনয় তিওয়ারিকে (Bihar IPS Officer Vinay Tiwari) ছুটি দিল বৃহন্মুম্বই পুরসভা। বিএমসি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, শুক্রবার ৭ অগস্ট তাকে কোয়ারেন্টাইন থেকে ছুটি দেওয়া হয়েছে। আগামীকাল অর্থাৎ শনিবার ৮ অগস্টের মধ্যে তিনি পাটনা ফিরতে পারবেন। তবে পাটনা ফিরে কাজ শুরু করার আগে তাঁকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার পরামর্শও দিয়েছে বিএমসি। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে বিএমসি-র অতিরিক্ত কমিশনার পি ভেলরাসু বিনয় তিওয়ারির কোয়ারেন্টাইন থেকে ছুটির অনুমোদন দেন। ৮ আগস্টের মধ্যে বিহারের ওই আইপিএস অফিসারকে মুম্বই ছাড়তে হবে, তাও জানিয়েছে বিএমসি। এই খবর প্রকাশ হতেই টুইট করে বৃহন্মুম্বই মিউনিসিপাল কর্পোরেশনকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন বিহারের ডিজিপি গুপ্তেশ্বর শর্মা।

এই প্রসঙ্গে গুপ্তেশ্বর শর্মা লিখেছেন, “সুপ্রিম কোর্টের বক্তব্যের পর গতকাল বিএমসির কমিশনারকে বিহার পুলিশের হেডকোয়ার্টারের তরফে একটি চিঠি পাঠানো হয়েছিল। সেখানে আইপিএস বিনয় তিওয়ারিকে কোয়ারেন্টাইন থেকে ছেড়ে দেওয়ার আবেদন জানানো হয়েছিল। আজ বিএমসি কর্তৃপক্ষ অফিসারকে ছুটি দিয়েছেন সন্ধের মধ্যেই পাটনা ফিরবেন তিনি। বিএমসিকে ধন্যবাদ। এই সবকিছুর মূলে রয়েছে অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্ত। গতমাসেই বাবা সুশান্তের বাবা কৃষ্ণ কুমার সিং পাটনার রাজেন্দ্রনগর থানায় ছেলের মৃত্যুর ঘটনায় একটি এফআইআর দায়ের করেন। সেই এফআইআরে অভিযোগের তির ছিল বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তী, তাঁর ভাই শৌভিক-সহ মোট পাঁচজনের বিরুদ্ধে। এরপরই তদন্তের প্রয়োজনে বিহার পুলিশের চারজনের একটি দল মুম্বই আসেন। দিন দুয়েক পর তদন্তের গতিপ্রকৃতি জানতে আইপিএস বিনয় তিওয়ারি পাটনা থেকে মুম্বইতে পৌঁছালেই তাঁকে কোয়ারেন্টাইনে নিয়ে যায় বিএমসি। তখনই শুরু হয় গোলমাল। আরও পড়ুন-Indian Railways: ‘বাংলো পিওন’ পদে আর নতুন নিয়োগ হবে না, ব্রিটিশ রাজত্বের অভ্যাসে ইতি টানছে ভারতীয় রেল

প্রথম থেকেই বিহার পুলিশের অভিযোগ ছিল সুশান্তের মৃত্যুর তদন্তে বাধা দেওয়ার জন্য এসব করা হচ্ছে। বিহারের ডিজিপি এও বলেন যে, বিনয় তিওয়ারিকে পাটনা ফিরতে দেওয়া হোক। যদিও বিএমসি পাল্টা জানায় যে তারা শুধুমাত্র কোয়ারেন্টাইন নিয়ে সরকারের গাইডলাইন মেনে চলছে। নিয়ম ভাঙতে তারা রাজি নয়। যদিও এই প্রসঙ্গে সুপ্রিম কোর্ট সাফ জানিয়ে দেয় যে বিএমসি এবং মুম্বই পুলিশের উচিত ছিল পেশাদারিত্বের সঙ্গে আচরণ করা। তদন্তের স্বার্থে শহরে আসা আইপিএস অফিসারের সঙ্গে এ হেন আচরণ মোটেও ভাল বার্তা দেয়নি। বিহার পুলিশের তরফে আইনি পদক্ষেপ জারি হলে সমস্যায় পড়তে হবে। তাই শুক্রবার সকালে তড়িঘড়ি আইপিএস বিনয় তিওয়ারিকে কোয়ারেন্টাইন থেকে ছেড়ে দিল বিএমসি।