Moinuddin Shams: করোনা প্রাণ নিল রাজ্যের আরও এক নির্বাচনী প্রার্থীর, প্রয়াত প্রাক্তন বিধায়ক মইনুদ্দিন শামস
করোনাভাইরাস (Photo Credit: IANS)

কলকাতা, ২৩ মে: কোভিডের (Covid-19) কারণে রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে প্রার্থী হওয়া আরও এক রাজনীতিবিদের প্রাণ গেল। নলহাটির (Nalhati) প্রাক্তন বিধায়ক তথা সদ্য় সমাপ্ত বিধানসভা নির্বাচনে নির্দল প্রার্থী হয়ে দাঁড়ানো মইনুদ্দিন শামস (Moinuddin Shams) করোনার কারণে প্রয়াত হলেন। আজ, রবিবার ভোরে দক্ষিণ কলকাতার এক হাসপাতালে মৃত্যু হয় তাঁর। করোনার নানারকম উপসর্গ দেখার পরই তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল।গত ৫ মে তাঁর করোনা রিপোর্ট পজেটিভ আসে। এরপর থেকেই তিনি আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। যদিও ১৯মে তাঁর করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছিল। কিন্তু তারপরেও তাঁর শারীরিক অবস্থা ভাল ছিল না।

বাম আমলে দীর্ঘদিন খাদ্যমন্ত্রী থাকা ফরওয়ার্ড ব্লকের কলিমুদ্দিন শামসের ছেলে মইনুদ্দিন তৃণমূলে যোগ দিয়ে ২০১৬ বিধানসভায় তৃণমূলের টিকিটে নলহাটি কেন্দ্রে বিধায়ক হন। তার আগে মইনুদ্দিন ফরওয়ার্ড ব্লকই করতেন। কিন্তু ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁকে প্রার্থী করেননি। এরপর প্রার্থী হতে না পারার হতাশায় তিনি কেঁদে ভাসান। তৃণমূলে টিকিট না পেয়ে পুরনো দল ফরওয়ার্ড ব্লকে ফিরতে চেয়েছিলেন। যদিও শেষ অবধি নলহাটি থেকে নির্দল প্রার্থী হয়েই লড়েন তিনি। নলহাটি কেন্দ্রে সহজেই বড় ব্যবধানে জেতেন তৃণমূল প্রার্থী রাজেন্দ্র প্রসাদ সিং। মইনুদ্দিন শামস সেখানে মাত্র ১৮১৬টি ভোট পেয়েছিলেন। তবে শেষ নির্বাচনের ফলের কথা বাদ দিলে তিনি এলাকায় বেশ জনপ্রিয় ছিলেন তা নিয়ে সন্দেহ নেই।

করোনায় প্রয়াত হয়ে ভোট চলাকালীন মারা যান খড়দার তৃণমূল প্রার্থী কাজল সিনহা (Kajal Sinha)। ফল বের হলে দেখা যায় কাজল সিনহা জিতে গিয়েছেন। কোভিডে প্রয়াত হন তেহট্টের প্রাক্তন বিধায়ক গৌরীশঙ্কর দত্ত । করোনায় প্রয়াত হয়েছিলেন কংগ্রেস প্রার্থী রেজাউল হক ও জঙ্গিপুরের আরএসপি প্রার্থী প্রদীপ নন্দী। করোনায় প্রার্থীদের মৃত্যুর কারণে মুর্শিদাবাদের সামসেরগঞ্জ ও জঙ্গিপুর বিধানসভায় ভোট হয়নি।