West Bengal Assembly Election 2021 : মাথাভাঙায় নিহতরা তৃণমূলের কর্মী, দাবি জোড়াফুল শিবিরের
নিহতরা তাঁদের কর্মী, দাবি তৃণমূলের

শীতলকুচি, ১০ এপ্রিল : চতুর্থ দফার ভোটে (West Bengal Assembly Election 2021) মাথাভাঙায় কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে যাঁদের মৃত্যু হয়েছে, তাঁরা তৃণমূলের কর্মী। এমনই দাবি করল তৃণমূল কংগ্রেস। শনিবার এক সাংবাদিক সম্মেলনে দোলা সেন (Dola Sen) দাবি করেন, হামিদুল হক, হামিনুল হক, মনিরুল হক এবং নূর আলম নামে যে ৪ দনের মৃত্যু হয়েছে, তাঁরা তাঁদের দলের কর্মী। মাথাভাঙা ১ নম্বর ব্লকের ওই ৪ কর্মীর উপর কেন্দ্রীয় বাহিনীর তরফে গুলি চালানো হয়েছে।

কেন্দ্রীয় বাহিনী (Central Force) নিজেদের সীমা পার করেছে। কেন্দ্রীয় বাহিনী অমানবিক ব্যবহার করছে বলে অভিযোগ করেন দোলা। পাশাপাশি কেন্দ্রীয় বাহিনীর অনায্য কাজের বিরুদ্ধে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যখন সরব হন, সেই সময় নির্বাচন কমিশনের তরফে তাঁর বিরুদ্ধে জারি করা হয় নোটিশ। শীতলকুচির ওই ঘটনার পর কেন্দ্রীয় বাহিনী এবং নির্বাচন কমিশনের (EC) বিরুদ্ধে একযোগে চূড়ান্ত ক্ষোভ প্রকাশ করেন দোলা সেন।

আরও পড়ুন : West Bengal Assembly Election 2021: ভোট দিলেন শ্রাবন্তী, যশ, তারকাদের ছটায় উজ্জ্বল চতুর্থ দফা

শনিবার সকাল থেকে শীতলকুচিতে তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে উত্তাপ ছড়ায়। বিজেপি কর্মীর মাথায় টিনের ড্রাম ঢুকিয়ে মারধরের অভিযোগ ওঠে। শীতলকুচি, নাটাবাড়ি, তুফানগঞ্জ ও দিনহাটার কয়েকটি বুথের বাইরে বিজেপি গুন্ডারা ঝামেলা করে বলে অভিযোগ ওঠে। তৃণমূল এজেন্টদের বুথে প্রবেশ করতে বাধা দেওয়ারও অভিযোগ করা হয়। এরপরই নির্বাচন কমিশনে পালটা অভিযোগ দায়ের করে তৃণমূল দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানায়।