SSC Recruitment Scam: অর্পিতার সঙ্গে নাকি কোনও ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক নেই, ইডি-র জেরায় অবাক দাবি পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের
Partha Chatterjee And Arpita Mukherjee (Photo: Twitter)

কলকাতা, ৫ অগাস্ট: অর্পিতা মুখোপাধ্য়ায়ের (Arpita Mukherjee) সঙ্গে তাঁর কোনও ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক নেই, ইডি-র (ED) জেরায় দাবি করলেন এসএসসি নিয়োগ দুর্নীতি (SSC recruitment Scam) মামলায় ধৃত পার্থ চট্টোপাধ্যায় (Partha Chatterjee)। সূত্রের খবর, ঘনিষ্ঠ সহযোগী ও একই মামলায় অভিযুক্ত অর্পিতার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক অস্বীকার করতে শুরু করেছেন তিনি। এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি) সূত্র জানিয়েছে যে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর পার্থ ও অর্পিতাকে মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করা হয়। সেখানেই অর্পিতার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক না থাকার কথা জানান রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী।

অর্পিতাকে চেনেন? ইডি আধিকারিকদের এই প্রশ্নের উত্তরে পার্থ জানান যে তিনি মাঝে মাঝে একটি দুর্গাপুজো ক্লাবে অর্পিতাকে দেখেছেন। ওই ক্লাবের সঙ্গে তিনি দীর্ঘদিন ধরেই যুক্ত ছিলেন। এরপর পার্থ স্পষ্টই জানান যে যে মাঝে মাঝে পুজো নিয়ে বৈঠক ছাড়া অর্পিতার সঙ্গে তাঁর কোনও ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ছিল না। অর্পিতার ফ্ল্য়াট থেকে বিপুল পরিমাণ টাকা উদ্ধারের বিষয়ে তিনি অবগত বলেও পার্থ জানিয়েছেন। তবে, তাৎক্ষণিকভাবে উদ্ধার হওয়া টাকার সঙ্গে তাঁর কোনও যোগসূত্র অস্বীকার করেন। উদ্ধার হওয়া নগদ অর্থের উৎস ও মালিকানা সম্পর্কে কোনও কিছু জানার কথাও অস্বীকার করেন।

পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের এই অবস্থানে বেশ অবাক ইডি আধিকারিকরা। এক ইডি আধিকারিক বলেন, "পর্যাপ্ত নথি এবং প্রমাণ রয়েছে, যা উভয়ের মধ্যে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক প্রমাণ করে। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ প্রমাণ হল অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের নামে ৩১টি বীমা পলিসি এবং এই সমস্ত পলিসিতে নমিনি পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তবুও, তিনি ঠান্ডা মাথায় অর্পিতার সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা অস্বীকার করছেন।" ওই ইডি আধিকারিক এটাও জানিয়েছেন যে পার্থর বক্তব্য শোনার পর অর্পিতার মুখের অভিব্যক্তিতে বিস্ময় ধরা পড়েছে। তবে তিনি প্রতিবাদ করেননি। আরও পড়ুন: Partha Chatterjee: হুইলচেয়ার পার্থ, প্রাক্তন মন্ত্রীকে আনা হল হাসপাতালে

শুক্রবার বিকেলে কলকাতায় পাবলিক মানি লন্ডারিং অ্যাক্টের (পিএমএলএ) বিশেষ আদালতে পার্থ ও অর্পিতাকে পেশ করা হবে। সূত্রের খবর, তাদের হেফাজতে আরও কিছুদিন পার্থকে দেওয়ার জন্য ইডি আদালতে আবেদন জানাবে। কারণ, জিজ্ঞাসাবাদের প্রতিটি পর্যায়ে সহযোগিতা করছেন না রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী।