Mamata Banerjee: তাঁর দরজায় সিবিআই কড়া নাড়লে তৃণমূল কর্মীরা অবস্থান বিক্ষোভে যাবেন, কী বললেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
Mamata Banerjee (Photo Credit: ANI/Twitter)

কলকাতা, ১৫ অগাস্ট: সিবিআই এলে রাস্তায় বসে পড়বেন, তৃণমূলের কর্মী সমর্থককে একথাই বলললেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। রবিবার বিকেলে একটি মিছিলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এক অপ্রত্যাশিত মন্তব্য করলেন। তিনি তাঁর সমর্থকদের বললেন "আপনারা এতো ভয় পাচ্ছেন কেন? সিবিআই আমার বাড়ি আসলে কি আপনারা রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করবেন না?" আরও পড়ুন-Pakistani Rabab Player Siyal Khan Plays Indian National Anthem: ভারতের ৭৫ বছরের স্বাধীনতায় পাকিস্তানি রবাব শিল্পীর বিশেষ 'উপহার', দেখুন ভিডিও

তাঁর এই মন্তব্যে বিরোধী দলের সদস্যরা বলছেন যে তাঁর মানে মুখ্যমন্ত্রীকেও বিভিন্ন দুর্নীতির অভিযোগে সিবিআই তদন্তের জন্য ডাকতে পারেন। তিনি হয়তো সেটা জানেন। রাজ্য বিজেপির মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য প্রশ্ন তুলেছেন, "কেন মুখ্যমন্ত্রী এমন কথা বললেন? কেন্দ্র তো এমন কথা বলেনি যে তাঁরা মুখ্যমন্ত্রীকেও ডাকবে তদন্তের জন্য?  তিনি কী পরোক্ষভাবে বললেন যে দুর্নীতির অভিযোগে সিবিআই আসতে পারে তাঁর কাছেও?"

সিপিএম নেতা রবীন দেব বলেছেন, "মুখ্যমন্ত্রী ভয় পেয়েছেন বোঝা যাচ্ছে। না হলে তিনি বলতেন "সিবিআই তার নিজের কাজ করুক।"

মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়ের দরজায় সিবিআই কড়া নাড়লে রাজ্যবাসী প্রতিবাদে মুখর হোন। মুখ্যমন্ত্রী একথা বলতে পারেন না। এমন মন্তব্য অনেকেই করেছেন।

কলকাতা হাইকোর্টের সিনিয়র কাউন্সিল ও সিপিআই এম - এর রাজ্যসভার সদস্য বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য বলেছেন, "মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যে স্পষ্ট যে, তিনি সরাসরি দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত।   পাশাপাশি তিনি তাঁর দলের সমর্থকদের রাস্তায় বিক্ষোভ করতে বলেছেন যা একেবারেই আইন বিরুদ্ধ। আইনভঙ্গকারীরা ক্ষমতায় এলে এমনটাই হয়।"

কলকাতা হাইকোর্টের সিনিয়র কাউন্সিলর কৌশিক গুপ্ত বিকাশ বাবুর সঙ্গে একমত নন। তিনি বলেন, "আমি মনে করি না মুখ্যমন্ত্রী কোনও আইন বিরুদ্ধ কথা বলেছেন। তিনি একটি আনুমানিক অবস্থায় বলেছেন যে সিবিআই তদন্তের জন্য তাঁর কাছে আসতেও পারে। যদি এমন ঘটনা ঘটে তবে সেটি আইন বিরুদ্ধ, কিন্তু এখনও সেই ঘটনা ঘটেনি, তাই এটি আইন বিরুদ্ধ কাজ বলা যাবেনা।"