JP Nadda's Convoy Attacked: 'রাজ্যে অরাজকতা, অসহিষ্ণুতা চলছে, মা দুর্গার আশীর্বাদে বেঁচে গেছি', কনভয়ে হামলা প্রসঙ্গে বললেন জেপি নাড্ডা
জেপি নাড্ডা

ডায়মন্ডহারবার, ১০ ডিসেম্বর: "রাজ্যে অরাজকতা চলছে, অসহিষ্ণুতা চলছে। মা দুর্গার আশীর্বাদে বেঁচে গেছি। তৃণমূলের গুন্ডারা চেষ্টার খামতি রাখেনি।" কনভয়ে হামলা প্রসঙ্গে দলীয় সভায় একথা বললেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা (JP Nadda)। আজ ডায়মন্ডহারবার (Diamond Harbour) যাওয়ার পথে নাড্ডার কনভয়ে হামলা হয়। শিরাকোল মোড়ে গাড়ি লক্ষ্য করে ছোড়া হয় ইট-পাথর। বেশ কয়েকটি গাড়ির কাচ ভেঙে যায়। এখানে পথ অবরোধ করেছিল তৃণমূল কংগ্রেস। পাথরের আঘাতে এক বিজেপি কর্মীর মাথা ফেটেছে। একটি বাসের সামনের কাচ ভেঙে দেওয়া হয়েছে। কৈলাস বিজয়বর্গীয়র (Kailash Vijayvargiya) গাড়ির কাচও ভেঙে গেছে।

এনিয়ে দলীয় সভায় নাড্ডা বলেন, "মমতার সরকার যাবেই, রাজ্যে পদ্ম ফুটবে। রাজ্যে জঙ্গলরাজ চলছে। এটা বলছি তর কারণ আছে। কৈলাস বিজয়বর্গীয়, রাহুল সিনহার গাড়ির অবস্থা দেখুন, আমার বুলেট প্রুফ গাড়ি ছিল বলে বেঁচে গেছি। গুন্ডারাজ চলছে। রাজ্যে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে হবে। এদের মানসিকতা বিপক্ষকে উৎখাত করা। তাই আপনাদের আশীর্বাদ চাইছি।" নাড্ডার দাবি, "সংস্কৃতি, সভ্যতার জন্য বাংলার পরিচয় ছিল। মমতা ব্যানার্জি যা করেছেন, বাংলাকে নীচে নিয়ে গেছেন। একে সোনার বাংলা তৈরি করতে হবে। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর কি তুই তো কারি করার ভাষা শিখিয়ে ছিলেন। বাংলা সভ্যতার জননী। যে ভাবে এটা নীচে নেমেছে তা ঠিক করতে হবে। মুকুল রায়কে দেখুন কত আঘাত লেগেছে।" আরও পড়ুন: Kolkata: ডায়মন্ডহারবার যাওয়ার পথে জেপি নাড্ডার কনভয়ে হামলা, কৈলাস বিজয়বর্গীয়র গাড়ির কাচ ভাঙল

ডায়মন্ডহারবারের তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে উদ্দেশ্যে করে নাড্ডা বলেন, "এখানকার সাংসদকে সংসদে দেখা যায় না। পুলিশের রাজনীতিকরণ হচ্ছে, প্রশাসনের হচ্ছে, এটা লজ্জার। প্রশাসন নেই রাজ্যে। প্রশাসন ভেঙে পড়েছে। কেন্দ্রীয় বাহিনী না থাকলে বাংলায় ঘোরা যাবে না। আম্ফানে প্রধানমন্ত্রী ১ হাজার কোটি টাকা দিয়েছেন। কিন্তু এখানে চালচোর, ত্রিপল চোর রয়েছে, ওই টাকা নিয়ে দুর্নীতি হয়েছে। কোর্ট বলেছে অডিট করতে। সুপ্রিম কোর্টে গেলেন মমতা। কারণ তিনি ভয় পাচ্ছেন।"