Kolkata: দক্ষতা ও সু-প্রশাসক হিসেবে মুখ্যমন্ত্রীর কর্মকাণ্ড বাংলার উন্নয়নের জন্য অপরিহার্য: কাকলি ঘোষ দস্তিদার
তৃণমূল সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদার (Photo: Facebook)

কলকাতা, ৬ জানুয়ারি: "মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পর প্রতিটি ভাষা, উপভাষাকে স্বীকৃতি দিয়েছেন। এর থেকে বোঝা যায়, তিনি সুপ্রশাসক। এবং তাঁর দক্ষতা ও সু প্রশাসক হিসেবে তাঁর কর্মকাণ্ড বাংলার উন্নয়নের জন্য অপরিহার্য।" আজ তৃণমূল ভবনে সাংবাদিক বৈঠকে একথা বলেন সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদার (Kakali Ghosh Dastidar)। তিনি বলেন, "পরিকল্পনা কর্মে রূপান্তর করতে পারলে তবেই উন্নতি হবে। পশ্চিমবঙ্গ সরকার একমাত্র সরকার যেখানে করোনার ফলে একটুও আর্থিক অবনতি হয়নি। দেশের আর্থিক পরিস্থিতি বর্তমানে বেহাল। এরকম এক অবস্থায় রাজ্যে ৪৩ শতাংশ বেশি কাজের সুযোগ বৃদ্ধি করতে পেরেছে রাজ্য সরকার।"

'জল ধরো-জল ভরো' কর্মসূচির উদাহরণ দিয়ে কাকলি ঘোষদস্তিদার বলেন, যেখানে জলের পরিস্থিতি খারাপ সেখানে ওই প্রকল্প চালু করে জলের সমস্য়া অনেকটাই সমাধান করেছে সরকার। ৭৭ লাখ কৃষক এই প্রকল্পে উপকৃত হয়েছেন। এতে কাজের সুযোগ পেয়েছেন ১০০ দিনের কাজের শ্রমিকরা। পাশাপাশি এই প্রকল্পের অধীনে যেসব পুকুর কাটা হয়েছে সেখানে মাছ চাষ হচ্ছে। অর্থাৎ বহুখাতে উন্নয়ন হয়েছে। আরও পড়ুন: Kolkata Water Transport: হুগলি নদীতে জলপথ পরিবহণ ব্যবস্থা বাড়াতে ৭৬৬ কোটি টাকা ঋণ অনুমোদন বিশ্ব ব্যাঙ্কের

বিজেপির সমালোচনা করে তিনি বলেন, গোটা দেশকে যেভাবে বিজেপি পরিচালনা করছে তাতে কোনও উন্নয়ন নেই, দেশে আইনের শাসন নেই। ক্ষমতা ধরে রাখতে নির্মম খেলায় মেতেছে বিজেপি। ক্ষমতা দখলের জন্য দাঙ্গা লাগাতে হলে তা লাগাবে। মানুষের মধ্যে বিভেদ তৈরি করতে চাইলে সেটাই করবে। এদের সঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসকে মেলালে চলবে না।