টিএমসিপি-র জাতপাত কটাক্ষের বিরুদ্ধে রবীন্দ্রভারতীতে গণপদত্যাগে অধ্যাপকরা
রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়। (Photo Credits: Wikimedia Commons)

কলকাতা, ১৮ জুন: জাতপাত তুলে কটাক্ষের অভিযোগে রবীন্দ্র ভারতীতে গণপদত্যাগ অধ্যাপকদের। কাঠগড়ায় রাজ্যের শাসক দল তৃণমূলের ছাত্র পরিষদ-TMCP। রবীন্দ্রভারতীর যে চার বিভাগীয় প্রধান জাতপাত তুলে কটাক্ষের অভিযোগে পদত্যাগ করেছেন, তাদের বলছেন,টিএমসিপি-র সদস্যরা তাদের বারবার জাতপাত তুলে কটাক্ষ করে। অর্থনীতি, রাষ্ট্র বিজ্ঞান, এডুকেশন এবং সংস্কৃত বিভাগের প্রধানরা পদত্যাগপত্র পাঠিয়ে দিয়েছেন উপাচার্যের কাছে। দু’জন ডিরেক্টরও পদত্যাগ করতে চেয়েছেন।

রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের জাতপাত কাণ্ডের জেরে ওঠা অভিযোগের দ্রুত নিষ্পত্তি করে তার ফলাফল সর্বসমক্ষে প্রকাশ করতে হবে বলে জানালেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়।কয়েক জন অশিক্ষককর্মীর বিরুদ্ধেও দুর্ব্যবহারের অভিযোগে সরব হয়েছেন অধ্যাপকরা। সংবাদমাধ্যমে প্রকাশ, একই কারণ রবীন্দ্রভারতীর আরও কয়েক জন অধ্যাপক এবং শিক্ষক পদত্যাগের ইচ্ছাপ্রকাশ করেছেন। আরও পড়ুন- মাঝ গঙ্গায় ভেসে উঠলেন জাদুকর ম্যানড্রেক, ডুবুরিরা তুলে আনলেন নিথর দেহ

তৃণমূল ছাত্র পরিষদ (টিএমসিপি)-এর বিরুদ্ধে রবীন্দ্রভারতীতে অধ্যাপকদের দিকে বেশ কিছু দিন ধরেই জাতপাত তুলে কটাক্ষের অভিযোগ উঠছিল । এমন কী পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে পৌঁছয় যে, সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের চার বিভাগীয় প্রধান তাঁদের পদত্যাগপত্র পাঠিয়ে দেন উপাচার্যের কাছে। টিএমসিপি-র এই অভিযোগ একেবারে অস্বীকার করেছে।ইতিমধ্যেই বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সব্যসাচী বসু রায়চৌধুরীর নির্দেশে প্রাথমিক তদন্ত শুরু হয়েছে।

পরিস্থিতি বুঝতে পেরে আসরে নেমেছেন খোদ শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। মঙ্গলাবার বিশ্ববিদ্যালয়ের বিটি রোড ক্যাম্পাসে পৌঁছন তিনি। শিক্ষামন্ত্রী ঘনিষ্ঠ মহলে এ নিয়ে ক্ষোভও প্রকাশ করেছেন। আলোচনার মাধ্যমে কী ভাবে বিষয়টি মিটিয়ে নেওয়া যায়, তার চেষ্টা চলছে বলে জানা গিয়েছে। সংবাদমাধ্যমে প্রকাশ ভূগোল বিভাগের এক শিক্ষিকাকে জাতপাত তুলে কটাক্ষ করেন তৃণমূল ছাত্র পরিষদের কয়েকজন সদস্য। কয়েক জন অধ্যাপককে গায়ের রং নিয়েও আপত্তিকর মন্তব্য করা হয়।