Kolkata: বৈবাহিক অশান্তির জের, বাসন্তীতে গৃহবধূর গলার নলি কাটা দেহ উদ্ধার
প্রতীকী ছবি (Photo Credits: File Photo)

কলকাতা, ১৪ অক্টোবর: ফের খুন শহরে। দক্ষিণ ২৪ পরগণায় (South 24 Pargana) ঘরের মধ্যে গলার নলি কাটা অবস্থায় মিলল গৃহবধূর দেহ। এনিয়ে উত্তেজনা ছড়ায় বাসন্তীর (Basanti) রাধারানীপুরে। মৃতার নাম সুলতা পৈলা। সন্দেহের তির সুলতার স্বামী দুলাল পৈলানের দিকে। প্রতিবেশী সূত্রে খবর, মৃত গৃহবধূর স্বামী দুলাল পৈলানের সঙ্গে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক রয়েছে। এনিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে অশান্তি লেগেই থাকত।সেই অশান্তি থেকেই এই মর্মান্তিক ঘটনা। দুলালই খুন করেছে সুলতাকে বলে জানা গিয়েছে স্থানীয় সংবাদমাধ্যম থেকে। বাসন্তী থানার পুলিশ মৃতদেহটি উদ্ধার করে বাসন্তী গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে আসে । সেখানে সুলতাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিত্সকরা। ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

অন্যদিকে গতকাল মায়ের ওপর দীর্ঘদিন অত্যাচার চালাত বাবা। সেই ক্ষোভে বাবাকে (Father) খুন নাবালক ছেলের (Unadult boy)। স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, খুনের পর ১৫ বছর বয়সী ছেলেটি খুন (Murder) করে থানায় পুলিশের কাছে গিয়ে নিজেই আত্মসমর্পন করে। ঘটনাটি শনিবার রাজারহাট (Rajarhat) থানা নবাবপুরের মুন্সি পাড়া এলাকায় ঘটেছে। আরও পড়ুন, রানাঘাটে বিজেপি কর্মীকে গুলি করে খুন, আইনশৃঙ্খলা নিয়ে প্রশ্ন তুলে আজ শহরে বিক্ষোভ বিজেপি-র

শনিবার রাত ৩টের সময় থানায় এসে ওই নাবালক জানায়, সে তার বাবাকে খুন করেছে। তার কথায় হতবাক হয়ে যায় পুলিশ। প্রাথমিভাবে পুলিশ ঘটনাটি বিশ্বাস করেনি। এরপর বিষয়টি খতিয়ে দেখতেই নাবালকের হাতে রক্ত চোখে পড়ে পুলিশের। এরপরই ছেলেটিকে নিয়ে তার বাড়িতে যায় রাজারহাট থানার পুলিশ। বাড়ির বারান্দা থেকে উদ্ধার করা হয় ব্যক্তির রক্তাক্ত মৃতদেহ।