Mamata Banerjee on WhatsApp Snooping: ফোনের সঙ্গে সঙ্গে এখন হোয়াটসঅ্যাপেও আড়ি পাতছে; বিস্ফোরক মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি
মমতা ব্যানার্জির প্রতীকি ছবি (Photo Credit: IANS)

কলকাতা, ২ নভেম্বর: লোকসভা নির্বাচনের (General Election) প্রচারের সময় অভিযোগ এনেছিলেন তাঁর ফোন ট্যাপ (Phone Tapping) করা হচ্ছে। ফের এই একই বিষয়ে সরব হলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি (CM Mamata Banerjee)। তবে এতদিন শুধু ফোনে আড়ি পাতার বিষয়েই অভিযোগ করতে শোনা গিয়েছিল তাঁকে। কিন্তু শনিবার মুখ্যমন্ত্রী অভিযোগ করলেন তার হোয়াটসঅ্যাপও (WhatsApp) নিরাপদ নয়!

পেগাসাস স্পাইওয়্যার নিয়ে দেশ-দুনিয়া জুড়ে চলছে তুলকালাম কাণ্ড। সেই সময়ে খোদ মুখ্যমন্ত্রীর এমনতর অভিযোগ যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলেই ধারণা সংশ্লিষ্ট মহলের। এদিন সাংবাদিকদের সামনে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, 'এ কোন স্বাধীনতা? যেখানে আমরা কথাও বলতে পারব না। আজ যাঁর সঙ্গেই কথা বলছি, তাই রেকর্ড করা হচ্ছে। সেই রেকর্ড কেউ শুনছে। এতদিন তো হোয়াটসঅ্যাপ নিরাপদ ছিল। এখন সেখানেও আড়ি পাতা হচ্ছে। হোয়াটসঅ্যাপও পুরো এনএসও এজেন্সি (NSO Group Israel) শুনে ফেলছে। না ল্যান্ড ফোন নিরাপদ, না মোবাইল ফোন। আর এখন তো হোয়াটসঅ্যাপকেও ভরসা করা যাচ্ছে না। পুরো নজরদারি চলছে। খুবই সংকটজনক অবস্থা।' দেশের বেশ কিছু সাংবাদিক এবং মানবাধিকারকর্মীর উপরও নজরদারি চালাতে ইজরায়েলি স্পাইওয়্যার পেগাসাস ব্যবহার করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। হোয়াটসঅ্যাপের তরফে ইতিমধ্যেই তা স্বীকারও করা হয়েছে। আরও পড়ুন: Social Security Scheme For Media Personnel: সাংবাদিকদের জন্য সামাজিক সুরক্ষা প্রকল্প আনছে সরকার, ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি

কেন্দ্রীয় সরকারের (Modi Government) কাছে অভিযোগ জানানোর বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্য, 'আমার ফোন যে ট্যাপ করা হয়েছিল সেটা আমি জানি। আর তার যথেষ্ট প্রমাণও রয়েছে আমার কাছে। কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে কী বলব! সরকারের তো সবই জানা! সরকারই তো এইসব করছে।'