Mamata Banerjee: ভুয়ো ভ্যাকসিন শিবির 'আইসোলেটেড কেস', রাজ্য সরকার জড়িত নয়: মুখ্যমন্ত্রী
ছবি এএনআই

কলকাতা, ৩০ জুন:  বুধবার স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড প্রকল্পের সূচনা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড (Student Credit Card) প্রকল্পের সূচনা করে মুখ্যমন্ত্রী জানান, এই কার্ডের মাধ্যমে ছাত্রছাত্রীরা ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ঋণ নিতে পারবে। অনলাইন সিস্টেমের মাধ্যমে এই কার্ডের জন্য অ্যাপ্লাই করতে হবে।  তবে স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের জন্য ঋণ নিতে হলে, তা যেন স্বচ্ছ থাকে। কোনও জালিয়াত যেন ক্রেডিট কার্ডের ঋণ নিয়ে জালিয়াতি করতে না পারে, সে বিষয়ে সাবধান করা হয় মুখ্যমন্ত্রীর (Mamata Banerjee) তরফে।

পাশাপাশি স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের ঋণ নিয়ে কেউ জালিয়াতি করতে গেলে, সে বিষয়ে বলতে গিয়ে ভুয়ো টিকাকেন্দ্র নিয়েও তোপ দাগেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, যে কেউ এই ধরনের জালিয়াতি করতে পারে সরকারের বিভিন্ন সংস্থার লোগো লাগিয়ে। এখন তো মেয়র হোক বা মুখ্যমন্ত্রী, বাইরে বের হলেই যে কেউ সেলিফ তুলতে চান। যে কোনও সময় একটা সেলফি তুলেই তা নিয়ে বিভিন্ন জালিয়াতি করা যায় বলে অভিযোগ করেন মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়। তাই সবাইকে সজাগ থাকতে হবে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী।

আরও পড়ুন:  Mamata Banerjee: ১০ লক্ষ পর্যন্ত ঋণ, 'গ্যারান্টার' লাগবে না, স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড প্রকল্পের সূচনায় মুখ্যমন্ত্রী

সেই সঙ্গে কসবায় (Kasba) যা হয়েছে, তা 'আইসোলেটেড কেস'। ওই ঘটনার সঙ্গে রাজ্য সরকার জড়িত নয়। ওই ঘটনার পর উপযুক্ত পদক্ষেপ করা হয়েছে। পাশাপাশি কসবায় ভুয়ো ভ্যাকসিন কেন্দ্র থেকে যে টিকা দেওয়া হয়েছে, তার জন্য কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রয়া হবে কি না, তা নিয়ে স্বাস্থ্য দফতর দেখভাল করবে। ভুয়ো ভ্যাকসিন নিয়ে কারও শারীরিক সমস্যা হলে, তার চিকিৎসার বিষয়ে স্বাস্থ্য দফতর নজরদারি করবে বলেও জানানো হয়।

পাশাপাশি এই ভুয়ো ভ্যাকসিন (Fake Vaccine Case) নিয়ে অনেকে অনেক কথা বলছেন। বিজেপি সাজিয়ে গুছিয়ে যে এই কাজটা করেনি, তার প্রমাণ আছে না কি বলেও প্রশ্ন তোলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।