Lok Sabha Elections 2019: একদিন আগেই আজ শেষ প্রচার, মোদী-শাহর অঙ্গুলিহেলনেই হচ্ছে সব, দাবি মমতার
মমতার কাঠগড়ায় মোদী-শাহ-কমিশন। (Photo Credits: ANI)

কলকাতা, ১৬মে: একেবারে নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত। রবিবার, ১৯মে রাজ্যের ৯টি লোকসভা (Lok Sabha Elections 2019) কেন্দ্রে সপ্তম তথা শেষ দফায় ভোটগ্রহণ। শেষ দফার নির্বাচনে প্রচারের শেষ দিন হওয়ার কথা ছিল শুক্রবার, বিকেল ৫টা। কিন্তু অমিত শাহ (Amit Shah) সভায়  ঝামেলা সহ নির্বাচন প্রচারে অশান্তির কারণে নির্বাচন কমিশন (Election Commission)-এর নির্দেশে শেষ দফার প্রচার শেষ হচ্ছে আজ, বৃহস্পতিবার রাত ১০টায়। শেষ দফার শেষ প্রচারে ঝড় তুলতে সব রাজনৈতিক দলই আজ কোমর বেঁধে নামছে। ফলে আজ শহরে বিকেলের পর থেকে যানজটের আশঙ্কা থাকছে।

একদিন আগে ভোট প্রচার শেষের পাশাপাশি রাজ্যের স্বরাষ্ট্র সচিবকেও সরিয়ে দেয়  কমিশন। কমিশন রাজ্যের বাহিনীকে অন্ধকারে রেখে কেন্দ্রীয় বাহিনী (Central Force)-কে দিয়ে নির্বাচন করাচ্ছে, বলে অভিযোগ মমতা ব্যানার্জি (Mamata Banerjee)-র। গতকাল রাতেই সাংবাদিক বৈঠকে কমিশনের স্বরাষ্ট্রসচিবকে সরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দেন মুখ্যমন্ত্রী। তৃণমূল সুপ্রিমো-র অভিযোগ, রাজীব কুমার (Rajeev Kumar)-কে স্বরাষ্ট্রসচিবের পদ থেকে সরানো অসাংবিধানিক, অগণতান্ত্রিক ও রাজনৈতিক পক্ষপাতদুষ্ট সিদ্ধান্ত। কমিশনের এইসব সিদ্ধান্ত আসলে পিছন থেকে নরেন্দ্র মোদী (Naraendra Modi) , অমিত শাহের অঙ্গুলিহেলনে হচ্ছে বলে মমতার অভিযোগ। নরেন্দ্র মোদী বাংলাকে অপমান করছেন বলেও মমতার অভিযোগ। বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙার বিজেপি অভিযুক্ত হওয়ায়, তা থেকে নজর ঘোরাতেই এমন সিদ্ধান্ত বলে দাবি মুখ্যমন্ত্রীর।

মমতার দাবি, রাজীব কুমার ভোটের কাজে যুক্ত ছিলেন না, তবু তাঁকে সরানোর পিছনে কাজ করেছে অন্য কারণ। আর তা হল হাওয়ালা-কাণ্ড ধরে দিচ্ছেন রাজীব কুমার। আর তাই মোদী-শাহররাজীব কুমারের ওপর এত রাগ। একেবারে চড়া সুরে এভাবেই মোদীর বিরুদ্ধে একের পর এক বিস্ফোরক অভিযোগ করতে থাকেন মমতা।