Lok Shabha Elections 2019: আগেই শেষ প্রচার, ভোট দশমীর শহরের আকাশ এখন মেঘলা
প্রচার শেষ, এবার শেষ দফার ভোট। (Photo Credit: ANI | Twitter)

কলকাতা, ১৭ মে: সব ঠিকঠাক থাকলে এখন শেষবেলার ভোটপ্রচার হওয়ার কথা ছিল। রবিবার রাজ্যে ৯দফার লোকসভা ভোট (Lok Sabha Elections 2019)। সব ঠিকঠাক থাকলে আজ, শুক্রবার বিকেল ৫টায় ভোটপ্রচার শেষ হওয়ার কথা ছিল। ঠিক যেমনটা হচ্ছে দেশের অন্য রাজ্যগুলিতে। কিন্তু শহরে অমিত শাহ (Amit Shah) -র ঝামেলায় অশান্তির পর নির্বাচন কমিশন ২০ ঘণ্টা আগেই প্রচার শেষ করার নির্দেশ জারি করেছে। গতকাল, বৃহস্পতিবার রাত ১০টায় ভোটপ্রচার শেষের পর আজ কলকাতা (Kolkata)-র অবস্থা থমথমে। ক দিন ধরে টানা প্রচারে একটা আলাদা উত্তেজনা ছিল, এখন সেই উত্তেজনাটা বদলে হয়েছে থমথমে অবস্থা। তৃণমূল ভবনের সামনের ভিড়ে এখন কেমন একটা আত্মবিশ্বাসের ভাব। আবার রাজ্য বিজেপির দফতর মুরলী ধর সেন লেনের বাইরে পার্টি কর্মীদের ঢলেও বেশ আত্মবিশ্বাস।

রবিবার শেষ দফায় যে ৯টি লোকসভায় ভোট হতে চলেছে তাতে তৃণমূল কংগ্রেস (Trinamool Congress) গতবার সব কটাতেই কার্যত অনায়াসে জিতেছিল। কিন্তু এবার সেখানে তৃণমূলকে চাপে রেখে অন্তত ৩টি আসন জেতা যাবে বলে বিজেপি (BJP)-র রাজ্য নেতাদের আশা। তৃণমূল আবার ফের ৯টা আসনেই আরও বড় জয়ের আশায়। ৯টা আসনের মধ্যে দক্ষিণ কলকাতা, উত্তর কলকাতা, দমদম কেন্দ্রে বিজেপির সঙ্গে সরাসরি লড়াই তৃণমূলের। ডায়মন্ড হারবার, মথুরাপুর, জয়নগরে আবার বামেরাই তৃণমূলের বিরুদ্ধে প্রধান শক্তি। বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙা কাণ্ডে ভোট মেরুকরণ হতে পারে চিন্তায় বামেরা।

এদিকে, স্থানীয় মিডিয়ায় প্রকাশ বৃহস্পতিবার দক্ষিণ ২৪ পরগনার বকুলতলা থানার বহুড়ুঘাটে বিপুল টাকা সহ আটক করা হয় এক বিজেপি নেতাকে। এদিন রাত দশটা নাগাদ একটি এসইউভি থেকে আটক করা হয় জেলা বিজেপি নেতা মিন্টু হালদারকে। তাদের কাছে থেকে উদ্ধার করা হয় ২৪ লাখ ১২ হাজার টাকা। মিন্টু ছাড়াও গ্রেফতার করা হয় গাড়ির চালক কৌশিক মন্ডল, সরস্বতী হালদার ও নমিতা সর্দারকে।