Thundershower in Kolkata: বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপের জের, পুজো উদ্যোক্তাদের বিপাকে ফেলে কালীপুজোর আগেই নামল বৃষ্টি
প্রতীকী ছবি (Photo Credit: File Photo)

কলকাতা, ২৩ অক্টোবর: সোমবার রাত থেকেই আকাশ কালো করে মেঘ জমেছিল। মঙ্গলবার দিনভর মেঘ রোদ্দুরের খেলা চললেও বুধবার সকাল থেকে আকাশের মুখ ভার। বারোটা বাজতেই শুরু টিপটিপ বৃষ্টি আর সন্ধে নামতেই শহকর কলকাতা-সহ উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনায় বাড়ল বৃষ্টির গতিবেগ। আলিপুর হাওয়া অফিসের পূর্বাভাস বলছে, সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বৃষ্টির গতিবেগ বেড়েই চলবে আকাশের যা পরিস্থিতি তাতে কালীপুজোতে ভাসাতে চলেছে বৃষ্টি এটা রাজ্যের বাসিন্দারা বেশ ভাল করেই বুঝে গিয়েছেন। রবিবার কালীপুজো, তার আগে আকাশের এমন মুখভারে ব্যবসায়ীরাও বেজায় বিপাকে পড়েছেন। বিক্রিবাট্টা শুরুর আগেই এমন অবস্থা হলে বাকিটা ঠিক কী হতে চলেছে তা বেশ স্পষ্ট।

এদিকে আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, দক্ষিণ ২৪ পরগনা (North & South 24 PGS), কলকাতা (Kolkata) ও ঝাড়গ্রামে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। তবে কালীপুজোতে (Kali Puja) বৃষ্টির সম্ভাবনা প্রবল থাকলেও ভারী বর্ষণ হবে কি না তা এখনই বলা যাচ্ছে না। তবে পুজোর আগে আলোর বাজার মার খেতে এই বৃষ্টিই যথেষ্ট। অফিস ফেরতা ক্রেতারা আলোর বাজারে না ঢুকেই বাড়ির দিকে হাঁটা দিচ্ছেন। পুজোর আগেভাগে সিজন চেঞ্জের বৃষ্টিতে ভিজে কেই বা আর অসুখ বাধাতে চায় বলুন। তবে কালীপুজো আসতে এখনও চারটে দিন বাকি রয়েচে এই যা ভরসা। এদিকে পুজো উদ্যোক্তাদের তো মাথায় হাত পড়েছে। শেষ মুহূর্তের মণ্ডপ সজ্জার কাজ এই বৃষ্টিতে প্রায় পণ্ড হতে বসেছে। কুমোরটুলিতে প্রতিমার গায়ে তুলির টান পড়লেও ফিনিশিং টাচ এখনও বাকি তার আগে নিম্নচাপ মৃৎশিল্পীদের যথেষ্ট ভাবাচ্ছে। আরও পড়ুন-Nobel Laureate Abhijit Vinayak Banerjee is in Kolkata: কলকাতায় নোবেলজয়ী, স্মৃতির শহরে পা রেখেই শুভেচ্ছায় ভাসলেন অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়

এদিকে আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, পশ্চিম বর্ধমান, পূর্ব-পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রামে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টি হবে। বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে কলকাতা-সহ হাওড়া, হুগলি, নদিয়া, দুই ২৪ পরগনা, মুর্শিদাবাদ, মালদহ এবং দুই দিনাজপুরে। এ দিন দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, কোচবিহার, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ারে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। শুধু বৃষ্টিই নয়, পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপের জেরে আগামী কয়েক দিন আবহাওয়াও থাকবে এমনই। তাই বাজি কিনে রোদ্দুরে তাজা করার কথা আপাতত ভুলে যাওয়াই মঙ্গলের। নাহলে দুঃখ বাড়বে বই কমবে না।