বৃষ্টির দেখা নেই রে... ৪৮ ডিগ্রি গরমের অনুভব টের পাচ্ছে কলকাতা, বর্ষার মরসুমে ভরা গ্রীষ্মে শহরবাসীর অবস্থা খারাপ
দাবদাহ কলকাতায়। (Photo Credits: IANS)

কলকাতা, ১৫ জুলাই:  Kolkata Temperature- অন্যান্য বছর এই সময় বর্ষায় জলে ডুবে যায় শহর। এমন সময় খবর হয় কলকাতার কোথায় কোথায় জল জমেছে, পুরসভা কী করছে-এইসব। কিন্তু এবার ছবিটা একেবারে আলাদা। আষাঢ় মাস শেষ হতে চলল, শ্রাবণ আসতে চলল, তবু বৃষ্টির দেখা নেই। বরং কলকাতার তাপমাত্রা আজ ৩৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তাপমাত্রার অনুভব (Feel Like)-মাত্রা এখন ৪৮ ডিগ্রি। মানে ৩৭ ডিগ্রি তাপমাত্রা হলেও, আদ্রতা সহ নানা বিষয়ে যোগ করলে কলকাতায় এখন ৪৮ ডিগ্রি গরমের মত অনুভব হচ্ছে।

সাধারণত অন্য়ান্য বছরের মত হলে বর্ষা এক মাস পড়ে যাওয়ার কথা। কিন্তু গত এক মাসে মাত্র দিন তিনেক বৃষ্টি হয়েছে। তাও আবার সেসব দিনগুলিতে টানা মিনিট কুড়ির বেশি বৃষ্টি হয়নি। কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গে জুড়েই ছবিটা একরকম। যদিও উত্তরবঙ্গে বৃষ্টি হচ্ছে। আরও পড়ুন-ছয় নয়, ওভার থ্রোয়ে আসলে পাঁচ রান পাওয়ার কথা ইংল্যান্ডের, বলছে ক্রিকেট আইন! ঘোর কাটছে না ক্রিকেট বিশ্বের

ভরা বর্ষার তীব্র গরমে শহরবাসীর হাল খারাপ। এত কম বৃষ্টির দেখার অভিজ্ঞতা নেই অনেকের। কবে ঢেলে বৃষ্টি নামবে আবহাওয়া দফতরও বলতে পারছে না। বরং হাওয়া অফিস জানিয়েছে, কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গে বাড়বে তাপমাত্রা। আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি আরও বাড়বে। আশার খবর বলতে, বুধবার থেকে বৃষ্টির পরিস্থিতি অনুকূল হতে পারে। কিন্তু তার সবটাই নির্ভর করবে ঘূর্ণাবর্তের উপর।

আবহবিদরা জানাচ্ছেন, জুলাই মাসে পারদের এমন উত্থান গত দশ বছরে দেখেনি কলকাতা। উল্টোদিকে এক সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে টানা বৃষ্টি চলছে উত্তরবঙ্গে। রবিবার সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় উত্তরে বৃষ্টির পরিমাণ এইরকম: জলপাইগুড়ি ২০৪.০ মিলিমিটার, দোমোহনি ১৭২.৬ মিলিমিটার, হাসিমারা ১৬২.২ মিলিমিটার, আলিপুরদুয়ার ১৫৪.৮ মিলিমিটার, কুমারগ্রাম ১৫১.০ মিলিমিটার। জলপাইগুড়ি, কোচবিহারের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল যথাক্রমে ২৮.৬ ডিগ্রি ও ২৯.৫ ডিগ্রিতে।