Jhargram Shocker: কোলে তুলে নাচ বৃহন্নলাদের, ঝাড়গ্রামে মৃত্যু দেড় মাসের শিশুর
বৃহন্নলাদের নাচ (Photo: TWITTER)

ঝাড়গ্রাম, ২৪ জানুয়ারি: বাড়িতে নতুন কোনও সদস্যর আগমন হলেই বৃহন্নলাদের (hermaphrodite) আগমন নতুন কিছু নয়। সদ্যোজাতকে (Child) আশীর্বাদ দেওয়ার বিনিময়ে টাকা দাবি করে থাকেন তাঁরা। অভিযোগ, কখনও কখনও তাঁদের সেই জোরজুলুম মাত্রা ছাড়িয়ে যায়। যার জেরে অনেক অপ্রীতিকর ঘটনাও ঘটে। এদিন ঝাড়গ্রামের (Jhargram) শিলদায় এমনই একটি মর্মান্তিক ঘটনা ঘটল। বৃহন্নলাদের নাচানাচির জেরে এক সদ্যোজাতের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ। এই সময়ের খবর অনুযায়ী, বাবা-মায়ের আপত্তি উড়িয়ে জোর করে নাচানোর ফলে দেড় মাস বয়সী অসুস্থ শিশুটির শ্বাসকষ্টে মৃত্যু হয়েছে। ওই ঘটনায় তিন বৃহন্নলাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

জানা যাচ্ছে, শিলদার বাসিন্দা চন্দন খিলারের স্ত্রী ৪ ডিসেম্বর যমজ পুত্র সন্তানের জন্ম দেন চন্দন। কিন্তু যমজদের একজনের হার্টে সমস্যা দেখা দেয়। ফলে জন্মের পর থেকেই ঝাড়গ্রাম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিল সুমন নামে ওই শিশুটি। চলতে থাকে চিকিৎসা। দিন কুড়ি আগে সুস্থ হয়ে ওঠে ওই শিশুটি। তারপরই তাকে বাড়ি নিয়ে যায় খিলার দম্পতি। অভিযোগ, এরপরই আজ সকালে বাড়িতে চড়াও হন বৃহন্নলারা। ১০ হাজার টাকা দাবি করতে থাকেন তাঁরা। একইসঙ্গে শিশু দুটিকে তাঁদের হাতে দেওয়ার জন্য জোর করতে থাকেন। প্রথমে রাজি না হলেও, পরে একরকম জোর করেই শিশুদুটিকে কোলে নেন বৃহন্নলারা। অভিযোগ, বার বার না করা সত্ত্বেও শিশুদুটিকে নিয়ে নাচানাচি করেন তাঁরা। আরও পড়ুন: Kailash Vijayvargiya: খাদ্যাভ্যাস দেখেই তিনি বুঝে যাচ্ছেন কারা বাংলাদেশি, সোশাল মিডিয়ায় ট্রোলড কৈলাস বিজয়বর্গীয়

এরপরই একরত্তি সুমন ফের অসুস্থ হয়ে পড়ে বলে দাবি করেছেন বাড়ির লোকেরা। তার শ্বাসকষ্ট শুরু হয়ে যায়। তড়িঘড়ি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে। সেখানেই চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। এই ঘটনায় শোরগোল পড়ে যায় এলাকায়। বিনপুর থানায় অভিযুক্তদের নামে অভিযোগ জানায় ওই শিশুর পরিবার। অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেফতার করা হয়েছে অভিযুক্ত তিন বৃহন্ন