Durga Puja 2020: 'বাংলায় মা দুর্গাকে ঘরের মেয়ে মনে করে আমন্ত্রণ জানানো হয়', EZCC-তে দুর্গাপুজোর উদ্বোধন করে বললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি
নরেন্দ্র মোদি. (Photo Credit: PBNS)

কলকাতা, ২২ অক্টোবর: সল্টলেকের EZCC-তে দুর্গাপুজোর (Durga Puja 2020) উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ( Prime Minister Narendra Modi)। এই পুজোর আয়োজনে রয়েছে রাজ্য বিজেপির মহিলা মোর্চা এবং সাংস্কৃতিক সেল। বেলা ১২টা নাগাদ পুজোর উদ্বোধন করেন মোদি। বাবুল সুপ্রিয়োর গান দিয়ে অনুষ্ঠান শুরুর পরই বক্তৃতা শুরু করেন মোদি। ভার্চুয়ালি ভাষণে মোদি বলেন, "দুর্গাপুজোর সময় গোটা দেশ বাংলাময় হয়ে যায়। সবাইকে দুর্গাপুজো ও দীপাবলির শুভেচ্ছা জানাই। বাংলার পবিত্রভূমিতে আপনাদের মাঝে এসে আমি ধন্য। বাংলার পবিত্রভূমিকে প্রণাম জানাই। উৎসবের এই উন্মাদনাই বাংলাকে চিনিয়ে দেয়।"

এক নজরে মোদির বক্তব্য :

  • আপনাদের দুরিগোপুজো, কালীপুজো ও দীবাবলির শুভচ্ছা ও অভিনন্দন। বাংলার এই পবিত্র ভূমিত পুজোর সময় আসতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করছি। আমার মনে হচ্ছে দিল্লিতে নয় বাংলায় রয়েছি। মা দুর্গার ভক্তরা, আমরা পরিজনরা আমাকে ডেকেছে।
  • মা দুর্গার আশীর্বাদে সবকিছু মঙ্গলময় হয়ে যায়। বাংলা ভারতমাতার সেবা করেছে। বাংলা মানবতাকে দিশা দেখিয়েছ। রামকৃষ্ণ, বিবেকানন্দ, চৈতন্য, মা আনন্দময়ী, অনুকূলচন্দ্র, এনারা বাংলাকে দিশা দেখিয়েছেন। রবীন্দ্রথ, শরৎচন্দ্র, ঈশ্বরচন্দ্র, গুরুচাঁদ ঠাকুর, হরিচাঁদ ঠাকুর আরও কত নাম।
  • বিজ্ঞানে জগদীশচন্দ্র বসু, আচার্য সত্যেন্দ্রনাথ বসুর নাম স্মরণ প্রধানমন্ত্রীর।
  • সিনেমা জগতে ঋত্বিক ঘটক, সুচিত্রা সেনের মতো শিল্পীদের অবদানও আজ উল্লেখ করেছেন তিনি।
  • বাংলার লোকেরা চিরকাল দেশকে উন্নতির পথ দেখিয়েছে। আমার আশা আগামী দিনেও বাঙালিরা ভারতকে এগিয়ে নিয়ে যাবে।
  • এ বার আমরা সবাই করোনা সঙ্কটের মধ্যেই মা দুর্গার উপাসনা করছি।
  •  লোক প্রবেশ কমেছে, সীমাবদ্ধতা রয়েছে। কিন্তু উৎসবে বাংলার উৎসাহের কোনও অভাব নেই। এটাই তো বাংলা। এটাই বাংলার পরিচয়।
  • দুর্গাপুজোয় মাস্ক পরে, করোনা থেকে সাবধান থাকার আর্জি প্রধানমন্ত্রীর।
  • মা দুর্গাকে দুর্গতিনাশিনী বলে। দুর্গাপুজো যেখানেই হয়, সেখানে অভাব দূর হয়। গরীবের কল্যাণ হয়।
  • •দেশে মহিলাদের শক্তি বাড়ানোর প্রক্রিয়া চলছে। ২২ লক্ষ মহিলার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট খোলা হয়েছে।
  • মাতৃত্বকালীন ছুটি বাড়ানো হয়েছে। ১২ সপ্তাহ থেকে ২৬ সপ্তাহ করা হয়েছে। ‘বেটি বাচাও বেটি পড়াও’ প্রকল্পে জোর দেওয়া হয়েছে।
  • আত্মনির্ভর ভারতের পাশাপাশি সোনার বাংলা গড়ার আহ্বান জানিয়েছেন ।
  • ‘বাংলার মাটি বাংলার জল’ কবিতাটি দু’কলি পাঠ করে তিনি।
  • বাংলার লোকদের সুবিধার জন্য কেন্দ্রের কাজ করছে বলেও এ দিন জানিয়েছেন তিনি।
  • প্রধানমন্ত্রী জনধন যোজনা, উজ্জ্বলা যোজনা ও প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনায় বাংলায় কী কী কাজ হয়েছে, সেই পরিসংখ্যানও এ দিন দিয়েছেন মোদী।
  • শান্তি, প্রেমের ভাবনায় দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী। বলেছেন হিংসার বিরুদ্ধে অহিংসা দিয়ে জয় করতে হবে।
  • সবশেষে প্রতিবছর মা দুর্গা ও মা কালীর সেবা যাতে করতে পারেন সে জন্য প্রার্থনা করেছেন।
  • বাংলা ভাষা খুব মিষ্টি। বাঙালিদের মত আমি নিজেকে বাংলা বলা থেকে বিরত রাখতে পারিনা।