Education Minister & Governor Clashes: বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ-উপাচার্য নিয়োগ নিয়ে রাজ্যপাল ও শিক্ষামন্ত্রীর তীব্র সংঘাত
রাজ্যপাল ও শিক্ষামন্ত্রীর তীব্র সংঘাত (Picture Source: facebook)

কলকাতা, ২ জুন: এবার শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চ্যাটার্জির (Education Minister Patha Chatterjee) সঙ্গে সংঘাতে জড়ালেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখর (Jagdeep Dhankhar)। বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ-উপাচার্য নিয়োগ নিয়ে শুরু হওয়া বিতর্কে শিক্ষামন্ত্রীর কঠোর সমালোচনা করে বিবৃতি দিল রাজভবন। শিক্ষামন্ত্রী সংবিধান এবং গণতন্ত্র সম্পর্কে কিছুই জানেন না বলেও মন্তব্য করা হয়েছে সেখানে। রাজভবনের তরফে এই ঘটনায় মুখ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপও চাওয়া হয়েছে।

বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ-উপাচার্য পদে অধ্যাপক গৌতম চন্দ্রকে সম্প্রতি নিয়োগ করেন রাজ্যপাল তথা আচার্য জগদীপ ধনখর।তাঁকে নিয়োগের পর থেকেই রাজনৈতিক টানাপোড়েন চলছিলই। ওই নিয়োগের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক প্রতিক্রিয়া দেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চ্যাটার্জি। তিনি বলেন, রাজ্য সরকারের পাঠানো নামের তালিকায় রাজ্যপাল বেছে বেছে বিজেপি ঘনিষ্ঠ ব্যক্তিকে সহ-উপাচার্য পদে বসিয়েছেন। এই নিয়োগ মানা হবে না বলেও দাবি করেন তিনি। আরও পড়ুন, ভালো ব্যবহারের জন্য তিহার জেল থেকে মুক্তি পেলেন জেসিকা লাল হত্যাকাণ্ড মামলায় দোষী মনু শর্মা

এই প্রতিক্রিয়ায় রাজ্যপাল জানান, শিক্ষামন্ত্রী যা বলেছেন, তা ‘অত্যন্ত দুঃখজনক’ এবং একজন মন্ত্রীর মুখে এ ধরনের কথা মানায় না। মন্ত্রী হিসেবে পার্থ চ্যাটার্জি যে শপথ নিয়েছেন, সেই শপথের জন্যও এটা অত্যন্ত অবমাননাকর বলে লেখা হয়েছে সেখানে। পার্থ চট্টোপাধ্যায় অবশ্য রাজ্যপালের ওই নিয়োগকে গুরুত্ব দেন নি। রাজভবনের এই বিবৃতি আসার আগেই বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ-উপাচার্য পদে রাজ্যপাল যাঁকে বেছে নিয়েছিলেন তাঁর বদলে অধ্যাপক আশিস পাণিগ্রাহীকে উচ্চশিক্ষা দফতর ওই পদে ইতিমধ্যে মনোনীত করেছে।