Congress: বাংলায় ১২টা আসনে জেতার ক্ষমতা আছে কংগ্রেসের, তৃণমূল ১০টা না ছাড়লে বামেদের সঙ্গে জোট হবে, সাফ বার্তা অধীরদের
Adhir Ranjan Chowdhury (Photo Credit: ANI/Twitter)

কলকাতা, ৮ জানুয়ারি: বিজেপির বিরুদ্ধে একজোট হয়ে 'ইন্ডিয়া'গড়ার পরই যে আন্দাজটা করা হচ্ছিল সেটাই হচ্ছে। বিজেপির বিরুদ্ধে বিরোধীদের একের বিরুদ্ধে এক প্রার্থী দেওয়ার পথে সবচেয়ে বড় বাধা হয়ে দাঁড়াচ্ছে আসন ভাগাভাগি নিয়ে সমঝোতা। কংগ্রেসকে বাংলায় দুটি আসন ছাড়ার শর্তে জোট করার বার্তা দিয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো তথা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্য কংগ্রেস নেতারা মমতার এই প্রস্তাব শুরুতেই খারিজ করেছেন। এবার রাজ্য কংগ্রেস নেতাদের দাবি পশ্চিমবাঙলায় তাদের দল আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে ১২টি আসনে জেতার ক্ষমতা রাখে। সূত্রের খবর এমনই। যেখানে গতবার কংগ্রেস বাংলা থেকে মাত্র দুটি আসনে জিতেছিল। রাহুল গান্ধীর 'ভারত ন্যায় যাত্রা' এবার বাংলায় ঝড় তুলতে শুরু করবে। পশ্চিমবঙ্গে ৫ দিন ধরে ৭ জেলায় 'ভারত জোড়ো ন্যায় যাত্রা'য় হাঁটবেন রাহুল সহ দেশের শীর্ষসারির কংগ্রেস নেতারা। রাহুল ঝড়ে এবার বাংলায় কংগ্রেস দারুণ ফল করবে। এমনটাই মনে করছেন রাজ্য কংগ্রেস নেতারা।

রাজ্য কংগ্রেস নেতাদের দাবি এবার লোকসভা নির্বাচনে ১২টি আসনে বাংলায় জেতার ক্ষমতা রাখে তারা। তাই তৃণমূল যদি অন্তত ১০টি লোকসভা আসন তাদের না ছাড়ে, তাহলে আগের মত বাংলায় শুধু বামেদের সঙ্গে জোট গড়েই ২০২৪ লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেস লড়বে। সূত্রের খবর, এমন প্রস্তাবই তৃণমূলকে পাঠাবে কংগ্রেস। বাংলায় দুটি দলের জোট হলে তৃণমূল ৩২টি ও কংগ্রেস ১০টি লোকসভা আসনে লড়ুক। এমনটাই চাইছেন অধীর চৌধুরীরা। সেখানে তৃণমূল খুব বেশী হলে কংগ্রেসকে বড়জোড় ৩ থেকে ৪টি আসন ছাড়তে পারে বলে শোনা যাচ্ছে। আরও পড়ুন-দেশের জন্য বড় সুখবর, সন্ধান পাওয়া নতুন তৈলখনি থেকে প্রথমবার হল তেল উত্তোলন, জানালেন পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী

দেখুন খবরটি

দার্জিলিং,বহরমপুর, মুর্শিদাবাদ, জঙ্গিপুর, মালদার দুটি আসন, রায়গঞ্জ, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, ও বসিরহাট বা নদিয়ার একটি আসনে লড়তে মরিয়া কংগ্রেস। তৃণমূলের সঙ্গে জোট না হলেও বামদের সঙ্গে আসন সমঝোতায় এই দশটি লোকসভা কিছুতেই ছাড়তে রাজি নয় হাত শিবির। ক'দিনের মধ্যেই মনিপুর, নাগাল্যান্ড, অসম হয়ে বাংলায় ঢুকবে রাহুলের যাত্রা। বাংলায় রাহুল ৫ দিন থাকবেন। মমতা গড়ে রাহুল হাঁটবেন ৫২৩ কিলোমিটার পথ। কংগ্রেস শীর্ষ নেতৃত্ব বাংলা থেকে অন্তত পাঁচটি লোকসভা আসনে জয়ের লক্ষ্যে বেঁধে দিয়েছেন বলে শোনা যাচ্ছে। সেখানে মমতার ফর্মুলায় ২-৩টি আসনে জোটে যাওয়া সম্ভব নয় বলেই মমতা সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দাগছেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী। এমনটাই মনে করা হচ্ছে। মমতার ফর্মুলা হবে, বাংলায় ইন্ডিয়া জোটকে নেতৃত্ব দেবে তৃণমূল। অধীরদের ফর্মুলা হল, আসন সমঝোতায় ৩২-১০।

বাংলায় তৃণমূলের সঙ্গে আসন সমঝোতা নিয়ে প্রকাশ্যে কেউ এখনই মুখ খুলতে চাইছেন না। সব সিদ্ধান্ত দলের শীর্ষ নেতৃত্ব নেবেন বলে এড়িয়ে যাচ্ছেন রাজ্য কংগ্রেস নেতারা। কিন্তু সন্দেশখালিতে ইডি আধিকারীকদের ওপর আক্রমণ কাণ্ডে অধীর চৌধুরীর রাজ্যে সিবিআই তদন্ত দাবি করার পরই স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে বাংলায় তৃণমূলের সঙ্গে জোটের সম্ভাবনায় জল ঢালছে বঙ্গ কংগ্রেস।

বাংলার মত ঝাড়খণ্ড ও উত্তরপ্রদেশে ইন্ডিয়া জোটের দলগুলির সঙ্গে আসন ভাগাভাগি নিয়ে কংগ্রেসে টানাপোড়েন চলছে। পঞ্জাবে জোট না হলেও দিল্লিতে কংগ্রেস, আপ জোট হতে পারে। দিল্লিতে কংগ্রেস ৪টি ও আপ ৩টি লোকসভা আসনে লড়তে পারে। মহারাষ্ট্র, বিহারে ইন্ডিয়া জোটের দলগুলির মধ্যে আসন ভাগাভাগির কাজ শেষ ধাপে দাঁড়িয়ে আছে। কর্ণাটক, তেলাঙ্গানা,হিমাচলপ্রদেশ, উত্তরাখণ্ড, ওডিশা, ছত্তিশগড়, কংগ্রেস একাই লড়ছে। গুজরাট,গোয়ায় কংগ্রেস-আপের জোট হলেও হতে পারে। জম্মু-কাশ্মীর, লাদাখে কংগ্রেস জোট করতে মরিয়া।