West Bengal Doctors' Strike: NRS-এ এলেন বুদ্ধিজীবীরা, আন্দোলনরত পড়ুয়াদের পাশে দাঁড়িয়ে অর্পনা সেন-কৌশিক সেনদের কড়া বার্তা মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে
আন্দোলনরত পড়ুয়াদের পাশে অপর্না সেন সহ বুদ্ধিজীবীরা। (Photo Credits: IANS, ANI)

কলকাতা, ১৪ জুন: এবার রাজ্যের বুদ্ধিজীবীরাও এনআরএসের পড়ুয়াদের পাশে দাঁড়ালেন। এনআরএস গিয়ে আন্দোলনরত জুনিয়র চিকিত্সকদের পাশে দাঁড়িয়ে চিত্র পরিচালক তথা অভিনেত্রী অপর্ণা সেন থেকে অভিনেতা-নাট্যপরিচালক কৌশিক সেন মুখ খুললেন। রোগীদের মত চিকিত্সকদের দিকটাও মাথায় রাখতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে আবেদন জানালেন অপর্না সেন। ছোট্ট কথায় বড় বার্তা দিয়ে অপর্না মুখ্যমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে বললেন, ''ভুলে যাবেন না, আপনি শুধু রোগীদের নন, চিকিত্সকদেরও মুখ্যমন্ত্রী।

এরপর অপর্ণা মুখ্যমন্ত্রীকে বার্তা দিয়ে বলেন, ''আপনি আপনার অবস্থান থেকে সরে আসুন, কারণ আপনি অভিভাবক।'' এদিকে, এই কাণ্ডে মমতা ব্যানার্জিকে ঘুরিয়ে সমালোচনা করে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন বললেন, চিকিত্সকদের আন্দোলনটাকে মমতা যেন প্রেস্টিজ ইস্যু হিসেবে না নেন। এদিকে আজও রাজ্যের স্বাস্থ্য পরিষেবা পুরোপুরি বেহাল রয়েছে। NRS-র পাশাপাশি এসএসকেএম, কলকাতা মেডিক্যাল কলজে, আরজিকর মেডিক্যাল কলেজ, ন্যাশনাল মেডিক্যাল কলেজেও স্বাস্থ্য পরিষেবা সেই সঙ্কটেই।  আরও পড়ুন-মুখ্যমন্ত্রীর 'হুমকি'-তে আরও জটিল পরিস্থিতি, NRS-এ ডাক্তারদের ওপর হামলার নিন্দা বিশ্ব মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের

NRS-এ গিয়ে অর্পনা সেন বলেন, ''আপনি (মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি নিজে এসে একবার কথা বলুন, হাতজোড় করে অনুরোধ করছি। ডাক্তারদের জীবন বিপন্ন। নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করা প্রয়োজন। আমার অনুরোধ, আপনি এসে একবার কথা বলুন। আপনি স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রীকে পাঠালেন, কিন্তু উনি তো পূর্ণমন্ত্রী নন। আপনি ওঁদের অভিভাবক, ওঁদের সমস্যাটা বোঝার চেষ্টা করুন। খুব ভালো ছাত্রছাত্রী না হলে, ডাক্তার হওয়া যায় না। ওরা যদি চলে যায়, তাহলে কি রাজ্যের পক্ষে ভালো হবে? জুনিয়র ডাক্তারদের হস্টেল থেকে বের করে দেওয়া হলে পরবর্তীতে তাঁরা যদি অন্যত্র চলে যান, রাজ্যের বাইরে চলে যান, তাহলে তা রাজ্যের ক্ষতি হবে অপর্না জানান।

রাজ্যের ডাক্তারদের নিরাপত্তাহীনতার কথা বলতে গিয়ে অপর্না সিসিটিভি না থাকার প্রসঙ্গ তোলেন। আশঙ্কার পরিবেশে চিকিতসকদের পক্ষে কাজ করাটা বেশ সমস্যার, বলে পাশে দাঁড়ান অপর্ণা। অপর্ণার পরই এই প্রসঙ্গ নিজের বক্তব্য জানান অভিনেতা, নাট্য পরিচালক কৌশিক সেনও। এর আগে রাজ্যের বিভিন্ন বিষয়ে স্বাধীন মতামত দেওয়া কৌশিক বললেন, ''পড়ুয়াদের পাশে সবার আগে এসে দাঁড়ানো উচিত ছিল মুখ্যমন্ত্রীরই। কারণ তিনি বিশেষ কোনও দলের মুখ্যমন্ত্রী নন। রাজ্যের প্রতিটি মানুষের মুখ্যমন্ত্রী তিনি। কৌশিক বলেন, সাধারণ মানুষ যাতে পরিষেবা পায়, সেই বিষয়টিও মাথায় রাখতে হবে ডাক্তারির পড়ুয়াদেরও, এটাই তিনি অনুরোধ করতে এসেছেন। তবে একইসঙ্গে চালিয়ে যেতে হবে প্রতিবাদও। কারণ নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন পড়ুয়ারাও।