Mithun Chakraborty Get Y+ Security: পদ্মশিবিরে যোগ দিয়েই ওয়াই প্লাস ক্যাটেগরির সুরক্ষা পেলেন অভিনেতা মিঠুন, কিন্তু কেন?
মিঠুন চক্রবর্তী (Photo Credits: Social Media)

কলকাতা, ১২ মার্চ: বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন গত রবিবার। এখনও সপ্তাহ কাটেনি, তার আগেই অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তীর (Mithun Chakraborty) জন্য ওয়াই প্লাস ক্যাটেগরির সুরক্ষার বন্দোবস্ত করল কেন্দ্রের মোদি সরকার। নরেন্দ্র মোদি ব্রিগেডে পদ্মশিবিরে যোগ দিয়ে নিজেকে ‘জাত গোখরো’ বলেছিলেন মিঠুন। একই সঙ্গে ‘এক ছোবলেই ছবি’। নিজের অভিনীত জনপ্রিয় ছবির ডায়লগ দিয়েই সেদিনে ব্রিগেড মাতাতে চেয়েছিলেন মহাগুরু। আজ শোনা যাচ্ছে প্রার্থী হতে না চাইলেও তাঁকে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচে প্রার্থী করতে তৎপর গেরুয়া শিবির। তেমনটাই জানিয়েছেন, কৈলাস বিজয়বর্গীয়। সে যাইহোক না কেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পান জেড প্লাস ক্যাটেগরির নিরাপত্তা। এবার তেকে মিছুনও ওয়াই প্লাস ক্যাটেগরির ঘেরাটোপে থাকবেন।

সাধারণত দেশের কোনও ভিআইপি বা সেলেবের উপরে হামলার আশঙ্কা রয়েছে, এমন খবর গোয়েন্দাদের কাছে থাকলে সেই ব্যক্তির জন্য ওয়াই প্লাস ক্যাটেগরির নিরাপত্তা ব্যবস্থার বন্দোবস্ত করা হয়। এক্ষেত্রে বর্ষীয়ান অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী কোনওভাবে প্রাণনাশের হুমকি টুমকি পেলেন কি না, তানিয়ে মুখে কুলুপ এঁটেছে গোয়েন্দারা এবং কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। তবে বেশ কিছুদিন আগেই এই ওয়াই প্লাস ক্যাটেগরির নিরাপত্তা পেয়েছিলেন বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত। এবার সেই তালিকায় চলে এলেন অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তীও। এখন থেকে সিআইএসএফ-এর নিরাপত্তা বলয়ে থাকবেন মহাগুরু। ওয়াই প্লাস ক্যাটেগরির নিরাপত্তা ব্যবস্থায় ভিআইপি-র সুরক্ষার জন্য ১১ জন কম্যান্ডোর পাশাপাশি আরও ৫৫ জন নিরাপত্তাকর্মীকে মোতায়েন করা হয়। যার মধ্যে দু’জন সর্ব ক্ষণের বন্দুকধারী ছাড়াও আরও চার জন বন্দুকধারী নিরাপত্তা রক্ষী থাকেন। আরও পড়ুন-Mamata Banerjee Health Update: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দেখতে এসএসকেএমে রুজিরা

মিঠুন বিজেপিতে এলেও তিনিই মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী কি না তানিয়ে প্রশ্ন করা হলে বিজেপির রাজ্যসভাপতি দিলীপ ঘোষ কেন্দ্রীয় নেতৃ্ত্বের কোর্টে বল ঠেলেছেন। তবে ব্রিগেডেই যে তিনি প্রথম মিঠুনকে দেখলেন তা জানিয়েছেন। আজ নন্দীগ্রামে শুভেন্দুর হয়ে প্রচারে মিঠুনের উপস্থিতির কথা থাকলেও তিনি ছিলেন না। একদা বামপন্থী তথা প্রয়াত বামনেতা সুভাষ চক্রবর্তী ঘনিষ্ঠ মিঠুন চক্রবর্তী মমতার সরকারে আসেন। তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ হন। তবে সারাদা কেলেঙ্কারির পর টাকা পয়সা ফেরত দিয়ে ২০১৬-তে শারীরিক অসুস্থতাকে কারণ হিসেবে দেখিয়ে সক্রিয় রাজনীতি থেকে সরে গেছিলেন মহাগুরু। তবে গত রবিবার বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলের শিকার ডিস্কো ড্যান্সার।