টিম ইন্ডিয়ার দল নির্বাচনের সাত সত্যি- ঋদ্ধির কামব্যাক থেকে গিলের ব্রাত্য থাকা চমকে ভরা সিলেকশন
পরিবারের সঙ্গে ঋদ্ধি। (Photo Credits: Twitter)

মুম্বই, ২১ জুলাই: বিশ্বকাপে খালি হাতে ফেরার পর ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে টিম ইন্ডিয়ায় দল নির্বাচনে চমক দিলেন ভারতীয় নির্বাচকরা। আগামী মাস থেকে শুরু হতে চলা ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের তিন ফর্ম্যাটের সিরিজের জন্য ভারতীয় দল (Team India) ঘোষিত হল। পুরো সফরেই খেলবেন বিরাট কোহলি। বিশ্বকাপের মাঝে শোনা যাচ্ছিল কোহলি ক্যারিবিয়ান সফরে বিশ্রাম নেবেন। কিন্তু কিউইদের কাছে হেরে বিদায়ের পর কোহলি ঠিক করবেন তিনি ক্যারিবিয়ান সফরে যাবেন।

৩ অগাস্ট থেকে শুরু হচ্ছে টিম ইন্ডিয়ার ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে। তিনটি টি টোয়েন্টি ম্যাচের সিরিজের সিরিজ দিয়ে বিরাট কোহলিদের সফর শুরু হবে। টি টোয়েন্টি সিরিজ হবে আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায়। আরও পড়ুন-কেন বাদ পড়লেন কেদার-কার্তিক!

৮ অগাস্ট থেকে শুরু ওযানডে সিরিজ। তারপর ২২ অগাস্ট থেকে শুরু দু ম্যাচের টেস্ট সিরিজ। আসুন এক নজরে দেখে নেওয়া যাক ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে দল নির্বাচনের সাতটা আসল খবর--

১) ঋদ্ধি-র প্রত্যাবর্তন

১৯ মাস পর টিম ইন্ডিয়ার স্কোয়াডে কামব্যাক হল ঋদ্ধিমান সাহা-র। আর পার্থিব প্যাটেল-দীনেশ কার্তিক নয়, ঋষভ পন্থের সঙ্গে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে টেস্ট সিরিজে দলে নেওয়া হল ঋদ্ধিমান সাহাকে। টেস্ট সিরিজের আগে টিম ইন্ডিয়া খেলবে তিন ম্য়াচের টি টোয়েন্টি ও তিনটি ওয়ানডে ম্যাচের সিরিজ। ওই ৬টা ম্যাচে কিপিং ভাল না হলে টেস্টে প্রথম একাদশে ঋদ্ধি-কে দেখা যেতে পারে।

কারণ কিপিং দক্ষতায় পন্থের চেয়ে অনেক এগিয়ে ঋদ্ধি। সুপারম্যানের তকমা পাওয়া ঋদ্ধি-র চেয়ে ব্যাটিং এগিয়ে থাকার জন্যই অবশ্য টেস্টে প্রথম পছন্দ পন্থ। 2018 সালে জানুয়ারিতে কেপ টাউনে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে খেলা টেস্টে চোটের পরেই জাতীয় দলের দৌড় থেকে ছিটকে যান শিলিগুড়ির পাপালি। ৩২টি টেস্ট খেলা ঋদ্ধি ফের জাতীয় দলের দরজা খুললেন।

২) বিরাট সমাচার

প্রথমে শোনা যাচ্ছিল বিশ্রাম নেবেন, কিন্তু বিরাট কোহলি তিন ফর্ম্যাটেই খেলবেন, এবং অধিনায়ক থাকবেন। তিন ফর্ম্যাটে যেমন কোহলি অধিনায়ক, তেমন তিন ফর্ম্যাটে সহ অধিনায়ক রোহিত শর্মা। বিশ্বকাপে অবিশ্বাস্য পারফরম্যান্সের জেরে রোহিত টেস্ট দলে টিকে রইলেন। হনুমা বিহারি, আজিঙ্কা রাহানের সঙ্গে টেস্ট দলে রোহিতও।

৩) সাবধান, বিশ্রাম

এমস ধোনি, জশপ্রীত বুমরা আর হার্দিক পান্ডিয়াকে বিশ্রাম দেওয়া হল। তবে বুমরা শুধু বিশ্রাম পাচ্ছেন ওয়ানডে আর টি টোয়েন্টিতে, তিনি টেস্টে খেলবে। ধোনি আগেই জানিয়েছিলেন আধাসেনায় ডিউটির জন্য তিনি ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে যাবেন না। আর ক্রমাগত খেলে যাওয়া হার্দিক পান্ডিয়াকেও বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে। যদিও হার্দিকের পরিবর্তে কোনও পেসার অলরাউন্ডার নেওয়া হল না। বিজয় শঙ্করের চোট না সারায় তিনিও দলে নেই।

৪) ধাওয়ান ধামাকা ফিরল

চোট সারিয়ে শিখর ধাওয়ান ফিরছেন। তবে টেস্ট দলে জায়গা হল না শিখরের। অন্যদিকে, বিজয় শঙ্করের পরিবর্তে বিশ্বকাপ স্কোয়াডে ঢোকা মায়াঙ্ক আগরওয়াল টেস্টে সুযোগ পেলেও ওয়ানডে দলে জায়গা পেলেন না। টেস্টে ওপেনার হিসেবে থাকলেন মায়াঙ্ক-লোকেশ রাহুল। মানে ওয়েস্ট ইন্ডিজে দুই কর্নাটকীকে ওপেন করতে দেখা যাবে।

৪) কেদার-কার্তিকে কোপ

বিশ্বকাপে খারাপ পারফরম্যান্সের জেরে বাদ পড়লেন কেদার যাদব, দীনেশ কার্তিক। কেকেআর ক্যাপ্টেন দীনেশ কার্তিককে ওয়ানডে তো বটেই টি টোয়েন্টি তেও স্কোয়াডে রাখা হল না। কেদার-দীনেশের পরিবর্তে দলে আনা হল শ্রেয়স আইয়ার-মনীশ পান্ডেকে। আইপিএল ও ঘরোয়া ক্রিকেটে ভাল খেলায় শ্রেয়স আইয়ারকে ওয়ানডে দলে রাখা হল। অন্যদিকে, এ দলের হয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে নজরকাড়া পারফরম্যান্স করা মনীশ পান্ডেকে ফেরানো হল জাতীয় দলে। প্রায় এক বছর পর টিম ইন্ডিয়ার ড্রেসিংরুমে ফিরলেন মনীশ পান্ডে।

৫) শুভমন গিল ব্রাত্য

নিউ জিল্যান্ড সফরে প্রথমবার সুযোগ দেওয়া হয়েছিল অনুর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপ জয়ী শুভমান গিলকে। দুটো ম্যাচে খেলে ব্যর্থ হন কেকেআর-এর তরুণ তারকা এই ব্যাটসম্যান। অনেকেই বলেছিলেন, চার নম্বর স্লটে গিলকে সুযোগ দেওয়া হতে পারে। কিন্তু মনীশ পান্ডের ফর্মের কারণেই তাঁকে সুযোগ দেওয়া হল।

৬) একাধিক পেসারদের সুযোগ, তিন ফর্ম্যাটে কেউ কমন নন

ওয়ানডে দলে সুযোগ পেলেন দিল্লির পেসার নভদীপ সাইনি। টি টোয়েন্টি দলে আছেন পেসার দীপক চাহার। ওয়ানডে, টি টোয়েন্টি দুটি দলেই আছেন খলিল আহমেদ। টেস্ট দলে ইশান্ত শর্মা ও উমেশ যাদব আছেন। মহম্মদ শামি ওয়ানডে, টেস্ট দলে আছেন, তবে টি২০-তে নেই। ভুবনেশ্বর কুমার আবার সীমিত ওভারের দলে থাকলেও টেস্টে দলে নেই। টেস্টে চার পেসার শামি, বুমরা, ইশান্ত, উমেশ যাদব।

৭) রাহুল চাহার প্রথমবার দলে, ওয়াশিংটনের সুন্দর কামব্যাক

প্রথমবার জাতীয় দলে খেলার সুযোগ পেলেন মুম্বই ইন্ডিয়ন্সের হয়ে গত আইপিএলের চমক স্পিনার রাহুল চাহার। টি টোয়েন্টি দলে থাকলেন চাহার। টি টোয়েন্টি দলে প্রত্যাবর্তন হল ওয়াশিংটন সুন্দরের। আগামী বছর টি টোয়েন্ট বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখে টি টোয়েন্টি স্কোয়াডে বোলিং একেবারে অনভিজ্ঞ প্রতিশ্রুতিবানদের ভিড়। টি টোয়েন্টি-তে নেই কুলদীপ যাদব, যুজবেন্দ্র চাহাল, রবীন্দ্র জাদেজা-রা। ক্রুনাল পান্ডিয়া টি টোয়েন্টি দলে থাকলেন।

দুই টেস্টের সিরিজের জন্য ভারতীয় দল: বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), আজিঙ্কা রাহানে, মায়াঙ্ক আগারওয়াল, লোকেশ রাহুল, চেতেশ্বর পূজারা, হনুমা বিহারী, রোহিত শর্মা, ঋষভ পন্থ, ঋদ্ধিমান সাহা, রবীচন্দ্রন অশ্বিন, রবীন্দ্র জাদেজা, কুলদীপ যাদব, ইশান্ত শর্মা, মহম্মদ শামি, জশপ্রীত বুমরা, উমেশ যাদব।

তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের জন্য ভারতীয় দল : বিরাট কোহলি (অধিনায়ক)), রোহিত শর্মা (সহ অধিনায়ক), শিখর ধাওয়ান, লোকেশ রাহুল, শ্রেয়স আইয়ার, মনীশ পান্ডে, ঋষভ পন্থ (wk), রবীন্দ্র জাদেজা, কুলদীপ যাদব, যুজবেন্দ্র চাহাল, কেদার যাদব, মহম্মদ শামি, ভুবনেশ্বর কুমার, খলিল আহমেদ, নভদীপ সাইনি

তিন ম্যাচের টি টোয়েন্টি সিরিজের জন্য ভারতীয় দল: বিরাট কোহলি (অধিনায়ক) Virat Kohli (Captain), রোহিত শর্মা Rohit Sharma (VC), শিখর ধাওয়ান, লোকেশ রাহুল , শ্রেয়স আইয়ার , মনীশ পান্ডে, ঋষভ পন্থ (WK), ক্রুনাল পান্ডিয়া, রবীন্দ্র জাদেজা, ওয়াশিংটন সুন্দর (Washington Sundar), রাহুল চাহার (Rahul Chahar), ভুবনেশ্বর কুমার (Bhuvneshwar Kumar,) খলিল আহমেদ (Khaleel Ahmed), দীপক চাহার (Deepak Chahar), নভদীপ সাইনি (Navdeep Saini)।