Sreesanth Ban: শ্রীসন্থের শাস্তি কমে সাত বছর, আগামী বছর অগাস্টেই উঠছে নির্বাসন, বোর্ডের ওম্বাডসম্যান ডি কে জৈন 'কেরলের স্পিডস্টার'কে আরও একটা সুযোগ দিলেন
শ্রীসন্থের নির্বাসন উঠল। (Photo Credits: PTI)

মুম্বই,২০ অগাস্ট: সাজা অনেকটা কমিয়ে শান্তাকুমারন শ্রীসন্থকে ক্রিকেটে ফেরার রাস্তা করে দেওয়া হল। আইপিএলে স্পট ফিক্সিংয়ে অভিযুক্ত ভারতের বিশ্বকাপজয়ী ক্রিকেটার এস শ্রীসন্থ (S.Sreesanth)-এর নির্বাসন আগামী বছর অগাস্টে উঠে যাচ্ছে। বিসিসিআইয়ের ওম্বাডসম্যান ডি কে জৈনের নির্দেশে শ্রীসন্থের ওপর থাকা আজীবন নির্বাসনের শাস্তি সাত বছরে কমিয়ে আনা হচ্ছে। ক মাস আগে সুপ্রিম কোর্ট শ্রীসন্থের শাস্তির ব্যাপারে পুর্নবিবেচনা করে দেখার আবেদন জানায় বোর্ডকে। শ্রীসন্থের বিষয়ে নতুন করে দেখার দায়িত্ব দেওয়া হয় বোর্ডের নবনিযুক্ত ওম্বুডসমান ডিকে জৈনকে। তিনিই শ্রীসন্থের শাস্তি কমালেন।

জৈনের নির্দেশের ফলে ২০১৩ সালের সেপ্টেম্বর থেকে নির্বাসিত থাকা কেরলের তারকা এই পেসারের শাস্তির মেয়াদ ২০২০ সালের অগাস্টে শেষ হবে। অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি ডিকে জৈন জানান,যেহেতু শ্রীসন্থ তাঁর সেরা সময় পেরিয়ে এসেছেন , আর ইতিমধ্যেই ৬ বছর নির্বাসনের শাস্তি পেয়ে গিয়েছে। তাই ওকে আগামী বছর খেলার সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। আরও পড়ুন-Cristiano Ronaldo: ধর্ষণকাণ্ডে মহিলাকে মোটা অর্থ দিয়ে মুখ বন্ধ রাখতে বলেছিলেন, স্বীকার ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো-র

জৈন  জানান, স্পট ফিক্সিংয়ের কারণে শ্রীসন্থের সাত বছরের যে নির্বাসন ছিল, তা চলতি মাসের ৭ তারিখ শেষ হয়ে গিয়েছে। শ্রীসন্থের শাস্তি কার্যকর হয়েছিল ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৩ সাল থেকে। শ্রীসন্থের শাস্তি ঠিক কতটা হওয়া উচিত, সেটা নতুন করে মূল্যায়ন করার দায়িত্ব ছিল ডিকে জৈনের ওপর। ২০১৩ আইপিএল-এ দিল্লি পুলিশ ম্যাচ গড়াপেটার কাণ্ডে রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে খেলা শ্রীসন্থকে গ্রেফতার করেছিল। শ্রীসন্থের সঙ্গে আরও দুই ক্রিকেটার অজিত চাণ্ডিলা ও অঙ্কিত চাভানকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। তারপরই শ্রীসন্থকে সব ঝরনের ক্রিকেট থেকে নির্বাসিত করা হয়। এরপর আদালতের দ্বারস্থ হন শ্রীসন্থ।