স্টেডিয়াম ঢাকার ব্যবস্থা না করলে ইংল্যান্ডে ক্রিকেট টুর্নামেন্ট আয়োজন নিষিদ্ধ করার প্রশ্ন তুললেন শশী থারুর
শশী থারুর। (Photo Credits: PTI)

নয়া দিল্লি, ১২ জুন: আম ক্রিকেটপ্রেমীদের মতই আইসিসি বিশ্বকাপ ২০১৯ (ICC World Cup 2019)-এ একের পর এক ম্য়াচ বৃষ্টিতে ভেস্তে যাওয়ায় ক্ষুব্ধ কেরল থেকে কংগ্রেসের সাংসদ শশী থারুর (Sashi Tharror)। টুইটারে নানা বিষয়ে নিজের তত্ত্বের জন্য বেশ জনপ্রিয় থারুর বিশ্বকাপে চলা বৃষ্টিতে ম্যাচ ভেস্তে যাওয়া নিয়ে বড় দাবি করলেন। ইংল্যান্ডে কোনও ক্রিকেট স্টেডিয়ামে কৃত্রিম ছাদের ব্যবস্থা নেই।

তা নিয়ে একধাপ এগিয়ে থারুর লিখলেন, বৃষ্টি থেকে বাঁচতে স্টেডিয়ামে ঢাকার ব্যবস্থা না করলে ইংল্যান্ডকে কি কোনওরকম ক্রিকেট টুর্নামেন্টের আয়োজন করতে দেওয়া উচিত হবে ?

এমসিসি-র উচিত স্টেডিয়ামে ছাদের পিছনে অর্থ ব্যয় করা।'' বৃষ্টির কারণে চলতি বিশ্বকাপ একেবারে আকর্ষণহীন হয়ে পড়ছে বলেও জানান কংগ্রেসের এই তারকা সাংসদ। প্রসঙ্গত, বৃষ্টির হাত থেকে বাঁচতে উইম্বলডনের সেন্টার কোর্টে কৃত্রিম ছাদ বসানো হয়েছে। বৃষ্টি এলেই সেখানে ছাদ সরিয়ে আনা হয়। তাতে বাইরে তুমুল বৃষ্টির মাঝেও অনায়াসে খেলা চলে। ইংল্যান্ডের বিভিন্ন ফুটবল মাঠেও আছে কৃত্রিম ছাদের ব্যবস্থা। কিন্তু বারবার দাবির পরেও ইংল্য়ান্ডের ক্রিকেট বোর্ডের কর্তারা বিষয়টা এড়িয়ে যান। আরও পড়ুন-ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস ইংল্যান্ডে, ICC বিশ্বকাপে আরও বেশ কিছু ম্যাচ বৃষ্টিতে ভেস্তে যাওয়ার আশঙ্কা

সোমবার, মঙ্গলবার- দুটো দিনই বিশ্বকাপের খেলা ভেস্তে গিয়েছে। আজ টনটনে অস্ট্রেলিয়া-পাকিস্তান ম্যাচে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। মঙ্গলবার সাউদাম্পটনে দক্ষিণ আফ্রিকা-ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যাচ ৪৫ বল খেলা হওয়ার পর তুমুল বৃষ্টি নেমে ভেস্তে যায়। তারপর গতকাল ব্রিস্টলে বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা ম্যাচে একটা বলও খেলা সম্ভব হয়নি মুষলধারে চলা বৃষ্টিতে।

২০১৭ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি (2017 Champions Trophy)-র সময়ও ঠিক এমনটাই হয়েছিল। দু বছর আগে একই সময়ে হওয়া চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে বেশ কয়েকটা ম্যাচ বৃষ্টিতে ধুয়ে গিয়েছিল। তখন ICC-কে কাঠগড়ায় তুলে বলা হয়েছিল বর্ষার সময় কেন ইংল্যান্ডে বিশ্বকাপের আয়োজন করা হয়েছে! সেই সময়ই আশঙ্কা করা হয়েছিল ২০১৯-বিশ্বকাপেও থাবা বসাতে পারে বৃষ্টি। বাস্তবেও তাই হল। যদিও আশার কথা হল, চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি ২০১৭-তে শুরুর দিকে যতটা বৃষ্টিতে বানচাল হয়েছিল, টুর্নামেন্ট এগোনোর সঙ্গে সেভাবে প্রভাব ফেলতে পারেনি। ২০১৭ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে দুটো ম্যাচ বৃষ্টিতে সম্পূর্ণ ভেস্তে গিয়েছিল। সেখানে এখনই ২০১৯ বিশ্বকাপে তিনটি ম্য়াচ বৃষ্টিতে বানচাল হয়েছে। পাকিস্তান-শ্রীলঙ্কা, দ.আফ্রিকা-ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা ম্যাচ বৃষ্টি এসে ধুয়ে গিয়েছে। রিজার্ভ ডে না রাখায় আইসিসি সমালোচিত হচ্ছে।