CWC 2023, IND vs AUS: ২ রানে ৩ উইকেট হারিয়েও বিরাট-রাহুল যুগলবন্দিতে দারুণ জয় টিম ইন্ডিয়ার

একেবারে কোণঠাসা অবস্থায় থেকেও অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে দুরন্ত জয় দিয়ে দেশের মাটিতে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করল ভারত। রবিবার চিপকে কঠিন পিচে টিম ইন্ডিয়ার বিশ্বকাপের উদ্বোধনী জয়ে নায়ক বিরাট কোহলি (৮৫) ও লোকেশ রাহুল (৯৭ অপরাজিত)। দলের দুই স্পিনার রবীন্দ্র জাদেজা (৩/২৮), কুলদীপ যাদব (২/৪২)-ও দারুণ বল করলেন। ৫২ বল হাতে রেখে ৬ উইকেটে অস্ট্রেলিয়াকে হারাল ভারত। রাউন্ড রবীন লিগে ৯টা ম্য়াচের মধ্যে শুরুতেই 'মিশন অস্ট্রেলিয়া' সফল হল টিম ইন্ডিয়ার। এবার বুধবার দিল্লিতে আফগানিস্কানের বিরুদ্ধে নামবেন রোহিত শর্মারা। ভারতের ৬ উইকেটের জয়ে দুই ওপেনার সহ তিনজন শূন্য রানে আউট হলেন। তা সম্ভব হল বিরাট কোহলি-কেএল রাহুলের তৃতীয় উইকে্টে ১৬৫ রানের অনবদ্য পার্টনারশিপের জন্য। শেষ অবধি ৯৭ রানে অপরাজিত থেকে দলকে জিতিয়ে আনায় ম্যাচ সেরার পুরস্কার জিতলেন ক মাস আগেও বিশ্বকাপে অনিশ্চিত থাকা চোট পাওয়া সেই কেএল রাহুল।

প্রথম ম্যাচে জিততে হলে ২০০ রান করতে হবে, এমন আপাত সহজ টার্গেটের সামনে ভারতের টপ অর্ডার তাসের ঘরের মত ভেঙে পড়েছিল। ভারতের দুই ওপেনার-রোহিত শর্মা, ইশান কিষাণ ও চারে নেমে শ্রেয়স আইয়ার- তিন জনেই শূন্য রানে আউট হন। ২ রানের মধ্যে ৩ উইকেট হারিয়ে শুরুতে চিপকে হ্য়াজেলউড, স্টার্কদের আগুনে ঝলসে গিয়েছিল ভারত। টিম ইন্ডিয়ার অনেক সমর্থকই তখন দু:স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছিলেন। কিন্তু চতুর্থ উইকেট বিরাট কোহলি-কেএল রাহুল এমন খেলে দিলেন, যাতে টিম ইন্ডিয়ার জয়টা খুব কঠিন দেখালো না। কোহলি-রাহুল ১৬৫ রানের কামিন্স, জাম্পাদের অনায়াসে সামলে দলকে জয় এনে দিলেন কোহলি, রাহুল। সেঞ্চুরি থেকে তিন রান দূরে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়লেন রাহুল। আর দলের জয় থেকে ৩৩ রান দূরে কোহলি ব্যক্তিগত ৮৫ রানে আউট হলেন হ্য়াজেলউডের বলে। ক দিন আগে কলম্বোয় পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সুপার সিক্সে চতুর্থ উইকেটে ২৩৩ রানের পার্টনারশিপ করেন কোহলি-রাহুল।

কোহলির আউটের পর এদিন চিপকে শেষ পর্যন্ত ৮ বলে ১১ রানে করে অপরাজিত থেকে রাহুলকে যোগ্য সঙ্গত দেন হার্দিক পান্ডিয়া।

চিপকে টপ অর্ডারের ভরাডুবির মাঝেও কার্যত সহজ জয় স্বস্তি দেবে ভারতীয় দলকে। অন্যদিকে, ভাল মানের স্পিনার না থাকা যে অজিদের বড় চিন্তায় রাখবে সেটা বলাই বাহুল্য়। চিপকের ঘূর্ণি পিচে কিছুই করতে পারলেন না জাম্পা, ম্যাক্সওয়েলে-র। কোহলি, রাহুলদের সামনে ক্লাবস্তরের দেখালো অজি স্পিন আক্রমণকে। এখানেই দুই দলের ফারাকটা গড়ে দিল। ২৩ বছর পর বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে হারল পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া।