Wasim Jaffer Announces Retirement From Cricket: সব ধরনের ক্রিকেট থেকে অবসর নিলেন ওয়াসিম জাফর
ওয়াসিম জাফর (PTI)

মুম্বই, ৭ মার্চ: সব ধরনের ক্রিকেট (Cricket) থেকে অবসর নিলেন ওয়াসিম জাফর (Wasim Jaffer)। গত বছর, তিনি ভারতীয় ক্রিকেটের প্রথম খেলোয়াড় হিসাবে ১৫০টি রনজি (Ranji) ম্যাচ খেলার রেকর্ড গড়েন। মুম্বই রনজি দলের হয়ে খেলা শুরু করলেও জাফর ২০১৫-১৬ সিজনে বিদর্ভে পাড়ি জমান। ৪২ বছর বয়সী জাফর ভারতের হয়ে ৩১টি টেস্ট খেলেছেন এবং ৩৪.১১ গড়ে গড়ে ১,৯৪৪ রান করেছেন। টেস্টে তাঁর পাঁচটি শতক এবং ১১টি অর্ধশতক রয়েছে। টেস্টে তাঁর সর্বোচ্চ রান ২১২। অবসরের ঘোষণায় জাফর বলেছেন, "আমার বাবা তাঁর ছেলেদের একজনকে ভারতের প্রতিনিধিত্ব করতে দেখতে চেয়েছিলেন এবং আমি তাঁর স্বপ্ন পূরণ করতে পেরে গর্ববোধ করছি।"

এক বিবৃতিতে জাফর লেখেন, "প্রথমত, আমি সর্বশক্তিমান আল্লাহকে ধন্যবাদ জানাতে চাই, যিনি আমাকে খেলার প্রতিভা দিয়েছেন। আমি আমার পরিবারকেও ধন্যবাদ জানাতে চাই। খেলাধুলাকে পেশা হিসাবে চালিয়ে যাওয়ার জন্য উৎসাহিত করার জন্য আমার বাবা-মা এবং ভাইদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি। এছাড়া আমার স্ত্রী, যিনি আমার ও আমাদের বাচ্চাদের জন্য সুন্দর সংসার করছেন ইংল্যান্ডের একটি স্বাচ্ছন্দ্যময় জীবন ছেড়ে।" রনজি ক্রিকেটে সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারী জাফরের আরও যোগ, "আমার দক্ষতাকে পালিশ করার জন্য সব কোচদের ধন্যবাদ। নির্বাচক যারা আমাকে বিশ্বাস করেছিলেন তাঁদের জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ।" আরও পড়ুন: MS Dhoni Smashes Five Consecutive Sixes: পরপর পাঁচ বলে পাঁচ ছয়, চেনা ছন্দে এমএস ধোনি

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে ডাবল সেঞ্চুরি করা কয়েকজন ভারতীয় ব্যাটসম্যানের মধ্যে একজন হলেন ওয়াসিম জাফর। তিনি সেন্ট লুসিয়ায় ক্যারিবিয়ানদের বিপক্ষে ২১২ রান করেছিলেন। ২০০৬ সালে সাউথ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্ট ও ওয়ানডে-তে অভিষেক হওয়া জাফর অবশ্য ঘরোয়া ক্রিকেটে বিশেষত রনজি ট্রফির জন্য স্মরণীয় হয়ে থাকবেন। প্রথম ভারতীয় ক্রিকেটার হিসেবে ১৫০ রনজি ম্যাচ খেলার কৃতীত্ব রয়েছে তাঁর ঝুলিতে। ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান তাঁর ক্যারিয়ারের বেশিরভাগ সময় মুম্বইয়ের হয়ে খেলেছিলেন এবং তার পরে বিদর্ভের হয়ে খেলা শুরু করেন। এই বিষয়ে জাফর লেখেন, "আমি যে সমস্ত অধিনায়কের অধীনে খেলেছি এবং আমার সহকর্মীদের কৃতজ্ঞতা জানাই। তাঁদের কাছ থেকে আমি এই খেলা সম্পর্কে অনেক কিছু শিখেছি এবং আজীবনের জন্য কিছু স্মৃতি ভাগ করে নিয়েছি। আমার দীর্ঘ যাত্রায় পাশ থাকার জন্য সাপোর্ট সটাফদেরও ধন্যবাদ জানাতে চাই।"