নেটফ্লিক্সের শো দেখে নিরামিষাশী হওয়ার পর 'গেম চেঞ্জার' বিরাট কোহলি যা বললেন
বিরাট কোহলি। (Photo Credits: Getty Images)

Virat Kohli Speaks About The Benefits of Turning Vegetarian-আর আমিষ খাওয়া বেশ কয়েকদিন আগেই ছেড়ে দিয়েছেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে একের পর এক রেকর্ড ভাঙা দুনিয়া সেরা কোহলি নেটফ্লিক্সের এক শো দেখে এতটাই অনুপ্রাণিত হয়েছেন যে তিনি নিরামিষাশি হয়ে গেলেন। নিরামিষাশি হয়ে দারুণ খুশি কোহলি আজ টুইট করে জানালেন নিজের অভিজ্ঞতার কথা।

টুইটারে কোহলি লিখলেন, "নেটফ্লিক্সের গেম চেঞ্জার্স দেখলাম। নিরামিষাশী খাদ্যাভাসে থাকা একজন অ্যাথলিট হিসেবে আমি বুঝেছি এতগুলো বছর ডায়েট নিয়ে যা বিশ্বাস করেছি সেগুলো মিথ ছাড়া কিছুই নয়।  কী অসাধারণ ডকুমেন্টারি। নিরামিষ খাওয়ার পর দারুণ লাগছে, এতটাই ভাল লাগছে যে জীবনে এত ভাল অনুভব এর আগে হয়নি।"

শুধু ব্যাটিং, অধিনায়কত্বের বিষয়েই নয় ফিটনেসেও বিরাট কোহলি বিশ্বসেরা। কোহলি অধিনায়ক হওয়ার পর ভারতীয় দলের ফিটনেস লেভেল দারুণ জায়গায় যায়। ফিটনেসের সঙ্গে ডায়েট বা খাদ্যাভাসের বড় সম্পর্ক রয়েছে।

ডিম, দুধ সহ বেশ কয়েকটা আমিষ পদ বিরাট কোহলির খুব প্রিয় ছিল। কিন্তু সফলতার তুঙ্গে থাকা অবস্থাতেও নিজের ফিটনেসের দিকে নজর দিতে গিয়ে কোহলি বুঝেছেন নিরামিষাশী হওয়ার কথা। ২০১৮ সালে নেটফ্লিক্সে জেমস ক্যামেরনের তথ্যচিত্রে জ্যাকি চেন, আনর্ল্ড সোয়াৎজানেগারের মাধ্যমে নিরামিষাশী হওয়ার উপকারিতার দিকটা শুনে মুগ্ধ হয়ে গত বছর থেকেই আর আমিষ খাচ্ছেন না কোহলি। শাকসব্জী জাতীয় জিনিস খেলে কীভাবে চোট থেকে দ্রুত কাটিয়ে ওঠা যায় তা UFC-র বিখ্যাত ফাইটার জেমস উইকেসের মাধ্যমে এই নেটফ্লিক্স শোয়ের মাধ্যমে জানতে পারেন বিরাট।