India vs New Zealand 3rd T20I 2020: রোহিত শর্মার জোড়া ৬, হ্যামিল্টনে তৃতীয় টি-২০ তে সুপারওভারে নিউজিল্যান্ডকে হারাল ভারত
রোহিত শর্মা (Photo Credits: Getty Images)

India vs New Zealand 3rd T20I-হ্যামিল্টনে তৃতীয় টি-২০ তে সুপারওভারে নিউজিল্যান্ডকে (New Zealand) হারাল ভারত (India)। নির্ধারিত ওভারে খেলা টাই হয়। ভারতের পাঁচ উইকেটে ১৭৯ রানের জবাবে ছয় উইকেট ১৭৯ তোলে নিউজিল্যান্ড। যার ফলে ম্যাচ গড়াল সুপার ওভারে। সুপারওভারে নিউজিল্যান্ড প্রথমে ব্যাট করে তোলে ১৭ রান। শেষ দুই বলে ছয় মেরে নাটকীয় ভাবে ভারতকে জেতালেন রোহিত শর্মা। একই সঙ্গে পাঁচ ম্যাচের টি-২০ সিরিজ ৩-০ তে জিতে নিল ভারত।

টসে হেরে ব্যাট করতে নামে ভারত। বুধবার হ্যামিলটনে জ্বলে ওঠেন রোহিত শর্মা৷ অর্ধশতরান করেন হিটম্যান৷ ব্যক্তিগত ৬৫ রানে সাউদির হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তিনি৷ অন্য ওপেনার লোকেশ রাহুল শুরুতে রোহিতকে যোগ্য সঙ্গত দিলেও ব্যক্তিগত ২৭ রানে প্যাভিলিয়নে ফেরেন ৷ বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি তিন নম্বরে নামা শিবম দুবে। এরপর ইনিংসের হাল ধরেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি ৷ কিন্তু অপর প্রান্তে ক্রমাগত উইকেট পড়তে থাকে ৷ ১৭ রানে আউট হন গত ম্যাচের নায়ক শ্রেয়স আইয়ার৷ কোহলি করেন ৩৮ রান। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ক্রিজে থেকে ম্যাচ শেষ করে আসেন মণীশ পাণ্ডে ও রবীন্দ্র জাদেজা ৷ দু'জনে যথাক্রমে করেন ১৪ ও ১০ রান৷ নিউজিল্যান্ডের কাছে ১৭৯ রানের লক্ষ্যমাত্রা খাড়া করে ভারত। আরও পড়ুন: Rohit Sharma: বিশ্বে দ্বিতীয় দ্রুততম, ওপেনার হিসেবে ১০,০০০ রানের মাইলস্টোন ছুঁলেন রোহিত শর্মা

ব্যাট করতে নেমে মার্টিন গাপ্টিল ও কলিন মুনরো ভাল শুরু করেছিলেন। প্রথম পাঁচ ওভারে উঠেছিল ৪৩ রান। এর মধ্যে পঞ্চম ওভারে লেগস্পিনার যুজবেন্দ্র চহালের বলে কঠিন ক্যাচ দিয়েছিলেন গাপ্টিল। স্লিপে যা ধরে রাখতে পারেননি বিরাট কোহলি। তবে ষষ্ঠ ওভারে শার্দুল ঠাকুরের বলে সুইপারে গাপ্টিলের ক্যাচ ধরলেন পরিবর্ত ফিল্ডার সঞ্জু স্যামসন। পরের ওভারেই ফের ধাক্কা। রবীন্দ্র জাডেজাকে ছয় মারতে গিয়ে স্টাম্পড হলেন মুনরো। স্যান্টনারকে শেষ পর্যন্ত ফেরালেন চাহাল। বোল্ড করলেন তিনি। চতুর্থ উইকেটে কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমির সঙ্গে উইলিয়ামসন ৪৯ রান যোগ করে চাপে ফেলেছিলেন ভারতকে। শার্দুল ঠাকুরের বলে গ্র্যান্ডহোমি ফিরলেও উইলিয়ামসন থামেননি। পরের ওভারেই জশপ্রীত বুমরাকে টানা তিন বার পাঠান সীমানার বাইরে। শেষ ওভারে নিউজিল্যান্ডের দরকার ছিল ৯ রান। মহম্মদ শামির শেষ চার বলে দরকার ছিল মাত্র দুই রান। ক্রিজে ৯৫ রানে খেলছিলেন কিউয়ি অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। কিন্তু, ওভারের তৃতীয় বলেই ফিরলেন উইলিয়ামসন। পরের বল হল না রান। পঞ্চম বলে হল বাই। স্কোর তখন সমান-সমান। শেষ বলে মারতে গিয়ে বোল্ড হলেন রস টেলর। নাটকীয় ভাবে টাই হয় ম্যাচ।

সুপার ওভারে জশপ্রীত বুমরার ছয় বলে কেন উইলিয়ামসন ও মার্টিন গাপ্টিলের ব্য়াটে ভর দিয়ে নিউজিল্যান্ড তোলে ১৭ রান। ফলে, সিরিজ জেতার জন্য ছয় বলে টিম ইন্ডিয়ার দরকার ছিল ১৮। রোহিত শর্মা প্রথম দু’বলে নেন তিন। তৃতীয় বলে লোকেশ রাহুল মারেন চার। পরের বলে আসে এক। টিম সাউদির ওভারের শেষ দুই বলে রোহিতকে করতে হত ১০ রান। পঞ্চম বলে হিটম্যান মারলেন বিশাল ছক্কা। শেষ বলেও মারলেন ছয়। সুপার ওভারে ২০ রান তুলে সিরিজ দখল করল টিম ইন্ডিয়া।