AUS Squad, ICC T20I WC 2024: মিচেল মার্শের বিশ্বকাপ দলে বাদ স্মিথ-ম্যাকগার্ক, জায়গা পেলেন অ্যাগার-গ্রিন
AUS T20I Team (Photo Credit: ESPNCricinfo/ X)

অস্ট্রেলিয়ার উজ্জ্বল তরুণ টি-টোয়েন্টি ব্যাটিং প্রতিভা জ্যাক ফ্রেজার-ম্যাকগার্ক এবং তাদের প্রজন্মের অন্যতম সেরা তিন ফর্ম্যাট ব্যাটার স্টিভ স্মিথ উভয়ই অস্ট্রেলিয়ার ১৫ সদস্যের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের অস্থায়ী স্কোয়াড থেকে বাদ পড়েছেন। তবে, নির্বাচকরা অ্যাশটন অ্যাগারের মতো দ্বিতীয় বিশেষজ্ঞ স্পিনার এবং ক্যামেরন গ্রিনে একজন অতিরিক্ত অলরাউন্ডার নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। প্রত্যাশা মতোই বুধবার সকালে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া স্থায়ী টি-টোয়েন্টি অধিনায়কের দায়িত্ব দিয়েছেন মিচেল মার্শকে। গত ১২ মাসে অন্তর্বর্তীকালীন অধিনায়ক হিসেবে অস্ট্রেলিয়াকে তিনটি টি-টোয়েন্টি সিরিজে নেতৃত্ব দিয়েছেন মার্শ। অস্ট্রেলিয়ার সেরা তিনি পেসার প্যাট কামিন্স, জশ হ্যাজেলউড এবং মিচেল স্টার্কের সঙ্গে চতুর্থ ফাস্ট বোলিং বিকল্প হিসাবে নাথান এলিসকেও অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে, এবং জশ ইংলিসকেও প্রথম পছন্দের কিপার ম্যাথু ওয়েডের রিজার্ভ উইকেটরক্ষক ব্যাটার হিসাবে নির্বাচিত করা হয়েছে। নির্বাচকরা তাদের অভিজ্ঞ ত্রয়ী ট্রাভিস হেড, ডেভিড ওয়ার্নার এবং মার্শের উপর আস্থা রেখেছেন, যারা গত বছর ওয়ানডে বিশ্বকাপে আধিপত্য বিস্তার করে। AFG Squad, ICC T20I WC 2024: রাশিদ খানের বিশ্বকাপ দলে ৬ জন আফগান অলরাউন্ডার, দলে এলেন নূর-ইশাক

গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, মার্কাস স্টোইনিস, টিম ডেভিড ও ওয়েডকে প্রথম পছন্দের একাদশে রাখা হতে পারে। ফ্রেজার-ম্যাকগার্কের বাদ পড়া অস্ট্রেলিয়ায় আলোড়ন সৃষ্টি করতে চলেছে কারণ আইপিএলে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করে তিনি ২৩৩.৩৩ এর স্ট্রাইক রেটে ছয় ইনিংসে তিনটি হাফ সেঞ্চুরি করেছেন। যদিও আন্তর্জাতিক ফরম্যাটে তিনি এখনও টি-টোয়েন্টি খেলেননি, কেবল দুটি ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছেন। সব ফরম্যাটে এক দশকে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের স্কোয়াড থেকে বাদ পড়লেও স্মিথের বাদ পড়াটা অবাক হওয়ার কিছু নেই। যদিও ২০২২ বিশ্বকাপের বেশিরভাগ সময় ধরে অস্ট্রেলিয়ার প্রথম পছন্দের টি-টোয়েন্টি দলে স্মিথ ছিলেন। গত নভেম্বরে ভারতের বিপক্ষে দুটি ও ফেব্রুয়ারিতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে আরও দুটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ওপেন করার সুযোগ পেয়েছিলেন তিনি। গ্রিন ইনজুরিপ্রবণ মার্শ এবং স্টোইনিসের বিকল্প এবং ইংলিস ব্যাকআপ উইকেটরক্ষক হিসেবে খেলতে পারেন। তবে, ম্যাথু শর্ট দুটি দুর্দান্ত বিবিএল মরসুমে খেলার পরও দুর্ভাগ্যজনক ভাবে বাদ পড়েছেন।

অস্ট্রেলিয়া স্কোয়াডঃ মিচেল মার্শ (অধিনায়ক), অ্যাশটন অ্যাগার, প্যাট কামিন্স, টিম ডেভিড, নাথান এলিস, ক্যামেরন গ্রিন, জশ হ্যাজেলউড, ট্রাভিস হেড, জশ ইংলিস (উইকেটরক্ষক), গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, মিচেল স্টার্ক, মার্কাস স্টোইনিস, ম্যাথু ওয়েড (উইকেটরক্ষক), ডেভিড ওয়ার্নার, অ্যাডাম জাম্পা।