Gujarat: প্রেমের টানে ঘর ছেড়ে পাকিস্তানের উদ্দেশে রওনা, মহারাষ্ট্র থেকে গুজরাত পৌঁছে জ্ঞান হারানো যুবককে উদ্ধার করল বিএসএফ
File image of security personnel at the border | (Photo Credits: PTI)

গান্ধীনগর, ১৮ জুলাই: ভারতের (India) যুবক-পাকিস্তানের (Pakistan) যুবতী, প্রেমের টানে বাধা কাঁটাতার। সেই বাধা অতিক্রম করতে ১২০০ কিলোমিটার পথ পেরিয়ে এসেছিলেন মহারাষ্ট্রের যুবক। পাকিস্তানের করাচিতে (Karachi) পৌঁছনোর জন্য গুগল ম্যাপ দেখি বেরিয়ে পড়া। কিন্তু পথের ক্লান্তিতে গুজরাতের (Gujarat) কচ্ছ এলাকায় পাকিস্তান সীমান্তের কাছে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন যুবক। শেষপর্যন্ত তাঁকে বিএসএফ জওয়ানরা উদ্ধার করে হাসপাতালে ভরতি করা হয়।

মহারাষ্ট্রের (Maharashtra) ওসামাবাদের বাসিন্দা ২০ বছরের যুবকের নাম সিদ্দিক্কি মহম্মদ জিশান। তিনি পাকিস্তানের করাচির এক যুবতীর প্রেমে পড়েছিলেন। ফেসবুকে দুজনের পরিচয় হয়। হোয়াটসঅ্যাপেও কথাবার্তা হত। কিন্তু কোনওদিন দেখা হয়নি। তাই মোটর বাইক নিয়ে বেরিয়ে পড়েছিলেন মহারাষ্ট্রের ওই যুবক। ১২০০ কিলোমিটার পথ পেরিয়ে এসে হাজিরও হয়েছিলেন গুজরাটের কচ্ছ এলাকায়। আরও পড়ুন, ভাঙল সব রেকর্ড, ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনা আক্রান্ত ১ হাজার ৮৯৪ জন

লকডাউনে ট্রেন বাস বন্ধ থাকায় ১১ তারিখ মোটর সাইকেলে করে বান্ধবীর বাড়ি রওনা দেন তিনি। ছেলে আচমকা নিখোঁজ হয়ে যেতে বাড়ির লোক ওসমানাবাদ পুলিশে খবর দেন। জিশানের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট ঘেঁটে পুলিশ জানতে পারে, তিনি পাকিস্তান রওনা দিয়েছেন করাচির একটি মেয়ের সঙ্গে দেখা করতে।

তাঁর মোবাইল ফোন রেকর্ড থেকে পুলিশের সাইবার উইং জানতে পারে, তিনি গুজরাতের কচ্ছে। তারা তখন যোগাযোগ করে গুজরাত পুলিশের সঙ্গে। খবর যায় বিএসএফের কাছে। বৃহস্পতিবার সন্ধেয় কচ্ছের রাণের ধোলাভীরা গ্রামের কাছে মহারাষ্ট্রের রেজিস্ট্রেশন নম্বর যুক্ত একটি পরিত্যক্ত মোটর সাইকেল পাওয়া যায়। রাতে পাকিস্তান সীমান্ত থেকে কিলোমিটার দেড়ের দূরে তাঁকে গ্রেফতার করে বিএসএফ। তাঁকে স্থানীয় পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে বিএসএফ। তাঁকে ফিরিয়ে আনতে ওসমানাবাদ পুলিশ গুজরাত রওনা দিয়েছে।