Tamanna Nusrat Bubly: আটজন 'ডামি'কে পরীক্ষায় বসিয়ে ডিগ্রি পেতে গিয়ে ধরা পড়া বাংলাদেশের সাংসদ তামান্না নুসরত বুবলিকে যে শাস্তি দেওয়া হল
তামান্না নুসরত বুবলি। (Photo Credits: Twitter)

ঢাকা, ২৩ অক্টোবর: পড়াশোনা করে ডিগ্রি পাওয়ার ক্ষমতা নেই। তাই নিজের মত দেখতে একেবারে ৮জনকে পরীক্ষায় বসিয়ে ডিগ্রি আদায়ের ফন্দি এঁটেছিলেন বাংলাদেশের আওয়ামি লিগ পার্টির সাংসদ-নেত্রী তামান্না নুসরত বুবলি (Tamanna Nusrat Bubly)। নিজে এইচএসসি পাস। কিন্তু উচ্চশিক্ষার ডিগ্রি হলে আরও ক্ষমতা পাওয়া যাবে। তাই ডিগ্রি আদায়ের জন্য ভাড়াটে পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষায় বসিয়ে ছিলেন সাংসদ তামান্না। বডিগার্ড দিয়ে ডামি পরীক্ষার্থীদের পাহারা দেওয়ার ব্যবস্থাও করেছিলেন তামান্না। তবে শেষরক্ষা হল না। বাংলাদেশী এই আওয়ামি লিগ নেত্রীকে এত বড় কুকীর্তির দায়ে বহিষ্কার করল মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

ডিগ্রি পেয়ে সামাজিক সম্মান ও সুবিধা আদায় করতে গিয়েই নিজের বিপদ ডেকে আনলেন আওয়ামি লিগ নেত্রী তামান্না। বাংলাদেশের এক বেসরকারী টিভি চ্যানেলের মাধ্যমে তামান্না নুসরতের অবাক করা কেলেঙ্কারির কথা সামনে আসে। শেখ হাসিনার দলের এই সাংসদের এই অপকীর্তি নিয়ে তোলপাড় পড়ে গিয়েছে। বাংলাদেশ জুড়ে সাংসদ তামান্নার ইস্তফার দাবি উঠেছে। খোদ দেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তলব করেছেন তামান্নাকে। শোনা যাচ্ছে মহিলা এই সাংসদের অপকীর্তিতে বেশ ক্ষুব্ধ হাসিনা।

সন্ত্রাসবাদী হামলায় মারা যাওয়া স্বামী নরসিংদীর প্রাক্তন মেয়র লোকমান হোসেনের স্ত্রী নুসরতে সাধারণ নির্বাচনের জন্য টিকিট দেন শেখ হাসিনা। সেই নির্বাচনে দেওয়া হলফনামা অনুযায়ী, তামান্না নুসরত বুবলী ছিলেন এইচএসসি পাস। পরে উচ্চশিক্ষা অর্জনের জন্য তিনি মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে বিএ কোর্সে ভর্তি হন। তবে বুঝেছিলেন তিনি পরীক্ষায় বসলেন বিএ পাশ করতে পারবেন না। আর তাই তার মত দেখতে আটজনকে বসিয়ে পাশ করার এই অভিনব অনিয়মের আশ্রয় নিয়েছিলেন। যা শেষ অবধি ধরা পড়ে গেল।