105 Years Old Woman Gives 4th Standard Exam: ১০৫ বছর বয়সে চতুর্থ শ্রেণির গণ্ডি পেরোলেন ভাগীরথি আম্মা
ভাগীরথি আম্মা (Photo Credits: ANI)

তিরুবনন্তপুরম, ২০ অক্টোবর: ইচ্ছে থাকলেই উপায় হয়। বয়স (Age) যে পড়াশোনার (Study) পথে কোন বাধা নয়, তা ফের প্রমাণ করে দিলেন কেরালার ভাগীরথি আম্মা (Bhageerathi Amma)। ১০৫ বছর বয়সে দিলেন চতুর্থ শ্রেণির পরীক্ষা (4th Standard Exam)। মাত্র ৯ বছর বয়সে পড়াশোনা বন্ধ হয়ে গেলেও, ইচ্ছেটা মনে গেঁথে ছিল। তাই বয়স যে শুধুমাত্র একটা সংখ্যা তা তিনি প্রমাণ করে দিলেন। কেরালা সরকারের (Kerala Government) পরিচালিত রাজ্য শিক্ষা মিশনের সব থেকে বয়স্কা শিক্ষার্থী হিসেবে পেরোলেন চতুর্থ শ্রেণির গণ্ডি।

কোল্লাম জেলার (Kollam District) বাসিন্দা ভাগীরথি আম্মা। ৬ ছেলে এবং ১৬ জন নাতি-নাতনি রয়েছেন তাঁর পরিবারে। পাহাড় ডিঙিয়ে আম্মা জানান, মাত্র ন'বছর, সেই সময় তৃতীয় শ্রেণিতে পড়তেন তিনি। তখন তাঁর পড়াশোনা বন্ধ হয়ে যায়। কারণ ওই সময় তিনি মা হন। আর সদ্যোজাত সন্তানের দেখাশোনা জন্যই পড়াশোনা বন্ধ করতে হয় তাঁকে। কিন্তু ইচ্ছেটা মরেনি। ইচ্ছে ডানায় ভর করেই শেষ পর্যন্ত কেরালা সরকারের শিক্ষা মিশনের বলে আম্মার হল স্বপ্ন পূরণ। আরও পড়ুন: Father Breastfeeds Baby: মায়ের অনুপস্থিতিতে বুকের দুধ খাওয়ালেন বাবা, ভিডিও দেখে তাজ্জব নেটিজেনরা

গত রবিবার শুরু হয় এই বিশেষ পরীক্ষা (Exam)। যা শেষ হয় মঙ্গলবার। আম্মার এই অভূতপূর্ব ফলে, রাজ্যের অন্য মানুষেরাও যে শিক্ষার প্রতি আগ্রহী হবে তেমনটাই মত কেরালার রাজ্য শিক্ষা দফতরের।