অন্য মহিলাকে হাঁ করে দেখা? বয়ফ্রেন্ডের মাথায় ল্যাপটাপ ছুঁড়লেন যুবতী(দেখুন ভিডিও)
চলছে মারধর(Photo Credit: Twitter)

মিয়ামি, ২৪ জুলাই: বয়ফ্রেন্ড শুধু তাঁরই, তাই অন্যকোনও মহিলা নয় তাঁকেই দেখবে সারাদিন। গার্লফ্রেন্ড এমনটা ভাবলেও তাঁর কথামতো কাজ করতে বয়ফ্রেন্ড্রের বয়েই গিয়েছে। এমন পরিস্থিতি আজ করত পেরেই প্রেমিকের মাথায় বেমক্কা ল্যাপটপের বাড়ি। একবার নয় যতক্ষণ প্রেমিক বেচারাকে হাতের নাগালে পেলেন ওই যুবতী ততক্ষণ চলল ধপা ধপ মার। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে মিয়ামি থেকে লসঅ্যাঞ্জেলস গামী বিমানের মধ্যে। তখনও ফ্লাইট ছাড়েনি, তাই অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে ওই মারকুটে যুগলকে বিমান থেকে নামিয়ে দিলে হাঁফ ছেড়ে বাঁচেন অন্য যাত্রীরা। আরও পড়ুন-পুলিশের গাড়িতে বেমক্কা ধাক্কাই কাল হল, হাজার কোটির ড্রাগ সমেত শ্রীঘরে গেল চালক

এদিকে যখন প্রেমিককে দরাজ হস্তে মেরে চলেছেন প্রেমিকা, তখন বিমানের সহযাত্রীদের বেশ কয়েকজন সেই ঘটনাকে মোবাইল বন্দি করেন। পরে তা সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার হতেই ভাইরাল। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, মিয়ামি থেকে তখনও ফ্লাইট ছেড়ে লসঅ্যাঞ্জলসের উদ্দেশে উড়ে যায়নি। বিমানে বসে যাত্রীরা। আচমকাই প্রেমীকা খেয়াল করলেন প্রেমিক হাঁ করে অন্য মহিলাকে দেখছেন। আর সহ্য হল রাগ চড়চড়িয়ে উঠল মাথায়। খেপে গিয়ে প্রেমিককে আচ্ছা করে কথা শোনালেন, তাতেও প্রেমিকপ্রবরের কোনও হেলদোল নেই। এবার অশ্রাব্য ভাষায় শুরু গালিগালাজ, প্রেমিকার এহেন কীর্তিতে সহযাত্রীরা ততক্ষণে কানে ইয়ার ফোন গুঁজেছেন। কেউ কেউ অতি আগ্রহে গোটা ঘটনাটি ভিডিও করে নিলেন।ওই যুগলের চিৎকারে শুনে তাঁদের কাছে আসেন ফ্লাইট অ্যাটেন্ডার। অশান্তি থামাতে প্রেমিককে বিমানের সামনের দিকের আসনে চলে যেতে বলেন তিনি। দেখা যায় প্রেমিকার ‘শাসন’ থেকে বাঁচতে তাঁর পাশের আসন থেকে উঠে সামনের দিকে উঠে যাচ্ছেন প্রেমিক। কিন্তু প্রেমিকার রাগ তখনও কমেনি। প্রেমিককে মারতে মারতেই তাঁর পিছন পিছন ছুটে যান তিনি। তার পর হাতে থাকা ল্যাপটপ দিয়ে মারতে থাকেন প্রেমিকের মাথায়।

যুগলের এহেন কাণ্ডে বিমানের বাকি যাত্রীরা হতবাক, সবাই হাসহাসি ফিসফিস শুরু করেছেন, বিপদ বুঝে ঝগরুটে যুগলকে বিমান থেকে নামিয়ে দিলেন অ্যাটেন্ড্যান্টরা। তারপর মিয়ামিবন্দর থেকে লসঅ্যাঞ্জেলসের উদ্দেশে উড়েগেল বিমান।