Kalki Avatar: কলিযুগে ফের জন্ম নেবেন কল্কি, কে ভগবান কল্কি?
Credit: Wikimedia Commons

ভগবান কল্কিকে মনে করা হয় ভগবান বিষ্ণুর (Lord Vishnu) দশম ও শেষ অবতার। সম্প্রতি উত্তরপ্রদেশের সম্বল (Sambhal) জেলায় শ্রী কল্কি ধামের ভিত্তিপ্রস্তর করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (PM Narendra Modi)। খুব শীঘ্রই সম্বলে তৈরি হতে চলেছে ভগবান কল্কির (Kalki) এক অপূর্ব মন্দির। কল্কি পুরাণ (Kalki Puran) এবং অগ্নি পুরাণের (Agni Purana) মতো অনেক ধর্মীয় গ্রন্থ অনুসারে, কলিযুগের শেষে, ভগবান বিষ্ণুর দশম অবতার হিসেবে জন্ম নেবেন ভগবান কল্কি এবং পৃথিবীতে হওয়া সমস্ত পাপ ও পাপীদের বিনাশ করবেন তিনি।

হিন্দু শাস্ত্র অনুযায়ী, ভগবান বিষ্ণুর ১০টি অবতার রয়েছে, যার মধ্যে ৯টি অবতারের জন্ম হয়ে গেলেও এখনও জন্ম হয়নি বিষ্ণুর দশম অবতার তথা কল্কি অবতারের। অগ্নি পুরাণ অনুসারে, ভগবান কল্কি তীর ধনুক নিয়ে সাদা ঘোড়ায় চড়ে রয়েছে। তবে কল্কি পুরাণ অনুসারে, উত্তরপ্রদেশের সম্বলে একটি ব্রাহ্মণ পরিবারে জন্মগ্রহণ করবেন ভগবান কল্কি। তাই উত্তরপ্রদেশের সম্বলে তৈরি করা হচ্ছে কল্কি ধাম (Kalki Dham)।

মহর্ষি বেদ হাজার হাজার বছর আগে ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন যে কলিযুগে পৃথিবীতে ধীরে ধীরে নৃশংসতা ও পাপ বৃদ্ধি পাবে। একটা সময়ের পর এই যুগে বেদ অনুসরণকারী কেউ থাকবে না। চরমে পৌঁছে যাবে অধর্ম। তখন জন্ম হবে ভগবান কল্কির। ভগবান কল্কি তার গুরু ভগবান পরশুরামের নির্দেশে তপস্যা করবেন ভগবান শিবের। এইভাবে তিনি অর্জন করবেন ঐশ্বরিক ক্ষমতা। এরপর পাপীদের বধ করে পৃথিবীতে আবার উড়বে ধর্মের পতাকা।

পুরাণ অনুসারে, শ্রাবন মাসের শুক্লপক্ষের পঞ্চমী তিথিতে সম্বলের এক ব্রাহ্মণ পরিবারে জন্মগ্রহণ করবেন কল্কি। ভগবান কল্কির পিতা ভগবান বিষ্ণুর একজন বড় ভক্ত হওয়ার পাশাপাশি হবেন বেদ ও পুরাণের বিশেষজ্ঞ। ধর্মীয় বিশ্বাস অনুসারে, ভগবান কল্কির জন্মের পর কলিযুগের অবসান হয়ে শুরু হবে সত্যযুগ। তবে কলিযুগের সময়কাল বলা হয়েছে ৪ লক্ষ ৩২ হাজার বছরের। তার মধ্যে মাত্র ৫ হাজার ১ শত ২৬ বছর অতিক্রান্ত হয়েছে, অর্থাৎ বর্তমানে কলিযুগের প্রথম পর্ব চলছে।