Happy Makar Sankranti 2020 Wishes: মকর সংক্রান্তির পুণ্য দিনটিতে আপনার পরিবার, বন্ধুবান্ধব এবং আত্মীয়স্বজনদের মধ্যে পাঠিয়ে দিন এই বাংলা Wishes, Facebook Greetings, WhatsApp Status, এবং SMS শুভেচ্ছাগুলি
মকর সংক্রান্তি ২০২০

Happy Makar Sankranti 2020 Bengali Wishes: সারা দেশ জুড়েই মকর সংক্রান্তি উৎসব (Makar Sankranti Festival) পালিত হয়। এই উৎসবের একটা প্রধান অঙ্গ পুণ্যস্নান। পুণ্যার্থীরা সমুদ্রে, গঙ্গায় বা অন্য কোনও নদীতে স্নান করে পুণ্য অর্জন করেন। নতুন ফসল ওঠার সুচনায়ও এই উৎসব পালিত হয়। ভারতের অনেক জায়গায় এই উৎসবের সঙ্গে লক্ষ্মী পুজোও করা হয়। মকর সংক্রান্তি উপলক্ষে বহু পরিবারে নতুন পোশাক পরে। বিশেষত কৃষি ভিত্তিক সমাজের অন্যতম প্রধান অঙ্গ এই উৎসব। ভারতের বাইরেও হিন্দুরা এই দিনটি উদযাপন করে। যেখানে ভারতীয় সংস্কৃতির বিস্তার ঘটেছে সেখানেই মকর সংক্রান্তি পালিত হয়। বিশেষত দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলিতে এই উৎসব আয়োজনের চল আছে। তবে দেশ ভেদে এই উৎসবকে নানা নামে ডাকা হয়। নেপালে এই দিনটি মাঘে সংক্রান্তি নামে সুপরিচিত।

শীতের মরসুমে মকর সংক্রান্তি বা পৌষ সংক্রান্তির (Poush Sankranti 2020) এই দিনটিকে পিঠে-পুলি, মালপোয়া খেয়ে উদযাপন করুন। মকর সংক্রান্তির এই দিনটিকে স্বাগত জানিয়ে 'লেটেস্টলি বাংলা' (LatestLY Bangla) আপনাদের জন্য সাজিয়ে এনেছে শুভেচ্ছা-পত্র (Wish Card)। আপনার কাছের মানুষদের পাঠিয়ে দিন এই সমস্ত শুভেচ্ছা বার্তাগুলি। আর ভাগ করে নিন মনের কোণে সাজিয়ে রাখা অনুভূতি (Emotion)।

সকলকে জানাই শুভ মকর সংক্রান্তির শুভেচ্ছা

Messages: সকলকে জানাই শুভ মকর সংক্রান্তির শুভেচ্ছা

মকর সংক্রান্তির শুভেচ্ছা এবং অভিনন্দন

Messages: মকর সংক্রান্তির শুভেচ্ছা এবং অভিনন্দন

শুভ পৌষ পার্বণ

Messages: শুভ পৌষ পার্বণ

সকলকে জানাই পৌষ সংক্রান্তির শুভেচ্ছা

Messages: সকলকে জানাই পৌষ সংক্রান্তির শুভেচ্ছা

পৌষ পার্বণের অনেক শুভেচ্ছা এবং অভিনন্দন

Messages: পৌষ পার্বণের অনেক শুভেচ্ছা এবং অভিনন্দন

মকর সংক্রান্তি ২০২০-র অনেক শুভেচ্ছা এবং অভিনন্দন

Messages: মকর সংক্রান্তি ২০২০-র অনেক শুভেচ্ছা এবং অভিনন্দন

বহুকাল ধরে এই দিনটি কৃষিজীবী বাঙালির বড় আনন্দের নতুন ধানের উৎসব। প্রাচীন হিন্দুরা আগে এই দিনটিতে পরলোকগত পূর্বপুরুষ বা বাস্তুদেবতার উদ্দেশে পিঠে-পায়েস নিবেদন করতেন। এর ঠিক আগের দিন গ্রামবাংলার গেরস্তবাড়ির উঠোন পরিষ্কার করে নিকিয়ে সেখানে চালগুঁড়ো দিয়ে আলপনা দেওয়া হত। যার মধ্যে কুলো, সপ্তডিঙা মধুকর, লক্ষ্মীর পা, প্যাঁচা এবং অবশ্যই ধানের ছড়ার আলপনা বেশি প্রচলিত ছিল। মা লক্ষ্মী ঘরে আসবেন বলেই হয়তো করা হত এত তোড়জোড়। এ-বাংলায় এই আচারটিকে লোকায়ত ভাষায় আউনি-বাউনি পুজোও বলে।