Ashok Chavan: রাজ্যসভার টিকিটের শর্তেই ইডি-র খাতায় নাম থাকা অশোক চৌহানের হাত বদলে এবার বিজেপিতে যোগ!
Ashok Chavan (Photo Credits: IANS)

লোকসভা ভোটের মুখে মহারাষ্ট্র কংগ্রেসে বড় ধাক্কা। রাজ্যের দু বারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী অশোক চৌহান (Ashok Chavan) কংগ্রেস (Congress) ছাড়লেন। মিলিন্দ দেওরা, বাবা সিদ্দিক্কির পর আরও বড় ধাক্কায় এবার অশোক চৌহানকেও হারাল হাত শিবির। ক দিন আগে এনসিপি (শরদ পাওয়ার), শিবসেনা (উদ্ধভ ঠাকরে)-র সঙ্গে কংগ্রেসের আসন সমঝোতায় হাজির ছিলেন চৌহান। কিন্তু আচমকাই তিনি দল ছাড়লেন। চৌহানের বিজেপিতে যোগ শুধুই সময়ের অপেক্ষা বলে মনে করা হচ্ছে। অশোক চোহান নিজেই জানালেন, ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে তিনি জানাবেন এবার তাঁর রাজনৈতিক পথ কী হবে।

সূত্রের খবর, তাঁকে রাজ্যসভায় পাঠাচ্ছে বিজেপি। আদর্শ হাউসিং কেলেঙ্কারিতে নাম জড়ানো অশোক চৌহানের বিরুদ্ধে ইডি-র তদন্ত চলছিল। জল্পনা ছিল, তাঁকে তলব করা হতে পারে। এসবের মাঝেই কংগ্রেস ছাড়লেন তিনি। মুম্বইয়ে ২৬/১১ জঙ্গি হামলার পর বিলাসরাও দেশমুখকে সরিয়ে অশোক চৌহানকে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী পদে বসিয়েছিলেন সোনিয়া গান্ধী। কিন্তু দু বছর পর আবার তাঁকে সরতে হয়। এরপর পৃথ্বীরাজ চৌহানকে তাঁর জায়গায় বসানো হয়।

দেখুন ভিডিয়ো

২০১৯ লোকসভায় তাঁর নিজর গড় নানদেদ থেকে ৪০ হাজার ভোটে হেরে গিয়েছেলেন অশোক চৌহান। এর আগে তিনি নানদেদের সাংসদ ছিলেন। তবে মহারাষ্ট্র বিধানসভায় সদস্য ছিলেন তিনি।

গত কয়েক বছরে বহু বড়মাপের নেতা- প্রাক্তন মন্ত্রীদের হারিয়েছে কংগ্রেস। দেশের গদি হারাতেই কংগ্রেস ছেড়েছেন একের পর এক নেতা। জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া থেকে আরপিএন সিং, জিতিন মাঝি থেকে গুলাম নবি আজাদ-দের মত প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও সাংসদরা কংগ্রেস ছেড়েছেন। কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে গিয়ে মোদী সরকারের গুরুত্বপূর্ণ দফতরে মন্ত্রী হয়েছেন জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া। রাজ্যসভায় সাংসদ হতে চলেছেন আরপিএন সিং। তবে অশোক চৌহানের দল ছাড়াটা হাত শিবিরের কাছে অনেক বড় ধাক্কা বলে মনে করা হচ্ছে।