Uttar Pradesh: গণধর্ষণের পর তরুণীর পায়ের উপর দিয়ে বাইক চালিয়ে দিল ধর্ষক, নির্মম ঘটনা উত্তরপ্রদেশে
Raped (representationla image)

দিল্লি, ১৫ জুলাই:  গণধর্ষণের (Gang Raped) পর নির্যাতিতার পায়ের উপর নিয়ে বাইক চালিয়ে নিয়ে গেল অভিযুক্ত। গণধর্ষণের পর যেভাবে নির্মমভাবে নির্যাতিতার পায়ের উপর দিয়ে বাইক চালানো হয়, তার জেরে এবার ফের অঘটনের মুখে বছর ৩০-এর তরুণী। রিপোর্টে প্রকাশ, ধর্ষণের ২ মাস পর এবার পা হারিয়ে কার্যত পঙ্গু হয়ে গিয়েছেন উত্তরপ্রদেশের ওই তরুণী।

উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh) কোশি কালান এলাকায় ২ মাস আগে গণধর্ষণ করা হয় এক তরুণীকে। অত্যাচারের পর নির্যাতিতার পায়ের উপর দিয়ে বাইক চালিয়ে দেয় এক অভিযুক্ত। অস্ত্রোপচার করে ওই তরুণী পা ঠিক করতে চাইলেও, শেষ পর্যন্ত তাঁকে ব্যর্থ হতে হয়। পা হারিয়ে চরম নির্যাতেনর পর এবার ওই তরুণী পুলিশের দ্বারস্থ হন এবং অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে দায়ের করেন এফআইআর। ভারতীয় দণ্ডবিধির বেশ কয়েকটি ধারায় অভিযুক্ত ৩ জনের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয় বলে খবর।

অভিযোগ দায়েরের পরপরই পুলিশ (Police) ২ জনকে সঙ্গে সঙ্গে গ্রেফতার করে। কিন্তু বাকি একজনকে এখনও ওই তরুণী সনাক্ত করতে পারেননি বলে জানানো হয় পুলিশের তরফে। নির্যাতিতার বয়ান অনুযায়ী, গত ২৪ মে তিনি নিজের বাড়ি থেকে কোশি কালানের দিকে যাচ্ছিলেন এটিএম থেকে টাকা তুলতে। ওই সময় পরিচিত এক ব্যক্তি তাঁকে মোটর বাইকে তুলে গন্তব্যে পৌঁছে দেবে বলে জানায়। গ্রামের ছেলেকে বিশ্বাস করে তাঁর বাইকে ওঠার পর সেই ব্যক্তি নিজের আরও ২ বন্ধুর সঙ্গে দেখা করে। জোর করে এরপর ৩ জন মিলে ওই তরুণীকে মদ্যপান করায় এবং গণধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। অত্যাচারের পর এক অভিযুক্ত মত্ত অবস্থায় তাঁর পায়ের উপর বাইক চালিয়ে দেয় বলেও অভিযোগ করেন ওই তরুণী।

আরও পড়ুন: Monkeypox: মাঙ্কিপক্সে প্রথম সংক্রমণ ভারতে, ফের গাইডলাইন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের

২৪ মে রাতে ওই ঘটনার পর রেললাইনের পাশে অজ্ঞান অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে ওই তরুণীকে উদ্ধার করে রেল পুলিশ। এরপরই তাঁকে ভর্তি করা হয় হাসপাতালে।